চলতি মাসে বাজারে আসা ৭টি সাশ্রয়ী ও মিডরেঞ্জের স্মার্টফোন

কভিড-১৯ বৈশ্বিক মহামারীর নতুন বাস্তবতায় যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি অনলাইন ক্লাসে অংশ নেয়া এবং বাসায় থেকে অফিসের কার্যক্রম পরিচালনায় স্মার্টফোনের চাহিদা বেড়েছে। এখন বাজারে তুলনামূলক সাশ্রয়ী ও মিডরেঞ্জের ডিভাইস বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। সাধ্যের মধ্যে সাশ্রয়ী বাজেটে মানুষ প্রয়োজনীয় ফিচার সংবলিত স্মার্টফোন কিনছেন বেশি।



চলতি মাসে বাজারে আসা নতুন ৭টি সাশ্রয়ী ও মিডরেঞ্জের ডিভাইসের স্পেসিফিকেশন ও ফিচার জেনেনিন

টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ার
দেশের বাজারে হংকংভিত্তিক মোবাইল ফোন নির্মাতা টেকনোর স্পার্ক সিরিজের সবশেষ সংযোজন স্মার্টফোন ‘টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ার’ নিয়ে এসেছে ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেড। ফোনে ৯০.৬ অনুপাতের স্ক্রিন-টু-বডির ৭ ইঞ্চি বড় ডট নচ এইচডি+ডিসপ্লেও রয়েছে। যাতে ৭২০ বাই ১৬৪০ পিক্সেলের নেটিভ রেজ্যুলিউশন পাওয়া যাবে। টেকনো স্পার্ক ৬ এয়ারের ৩ জিবি+৬৪ জিবি সংস্করণের দাম ১০ হাজার ৯৯০ টাকা। কোয়াড ফ্ল্যাশ লাইট সেটআপসহ ১৩ এমপি এআই ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা সেন্সর ছাড়াও এতে একটি ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ সেন্সর ও একটি থার্ড এআই লেন্স রয়েছে। পেছনের ক্যামেরায় রয়েছে এফ ১.৮ অ্যাপারচার ও কোয়াড ফ্ল্যাশ লাইট সেটআপ। সেলফি তোলার জন্য ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরা। পারফরম্যান্সের জন্য রয়েছে অক্টাকোর প্রসেসর এবং ৩ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি স্টোরেজ। অ্যান্ড্রয়েড ১০ চালিত ফোনটিতে আপনি ৩টি ব্লুটুথ অডিও ডিভাইস সংযোগ করতে পারবেন। স্পার্ক ৬ এয়ার ফোনটিতে রয়েছে ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার বিশাল ব্যাটারি, যা একবার পুরোপুরি চার্জে টানা ৪ দিন ব্যবহার করা যাবে।

পোকো এম২ ও পোকো সি৩:
গত সপ্তাহে দেশের বাজারে পোকো ‘এক্স৩ এনএফসি’ স্মার্টফোনের পাশাপাশি ‘পোকো এম২’ এবং ‘পোকো সি৩’ মডেলের নতুন তিনটি ডিভাইস উন্মোচন করেছে স্মার্টফোন ব্র্যান্ড পোকো। ২০১৮ সালে পোকো এফ১ আনার পর দ্বিতীয়বারের মতো শাওমির সাব-ব্র্যান্ডটি দেশে নতুন স্মার্টফোন এনেছে। দেশের বাজারে পোকো এম২ ডিভাইসের ৬ গিগাবাইট র্যাম ও ৬৪ গিগাবাইট স্টোরেজ সংস্করণ ১৫ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং ৬ গিগাবাইট র্যাম ও ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণ ১৬ হাজার ৯৯৯ টাকায় পাওয়া যাবে। এছাড়া পোকো সি৩ স্মার্টফোনের ৩ গিগাবাইট র্যাম ও ৩২ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণ ১১ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং ৪ গিগাবাইট র্যাম ও ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণ ১২ হাজার ৯৯৯ টাকায় কেনা যাবে।

মটো জি৮ পাওয়ার লাইট:
দেশের বাজারে ‘মটো জি৮ পাওয়ার লাইট’ মডেলের নতুন স্মার্টফোন এনেছে মটোরোলা। গত ১১ নভেম্বর থেকে শুধু ই-কমার্স প্লাটফর্ম দারাজে ফোনটি বিক্রি শুরু হয়েছে। ডিভাইসটিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চি এইচডি প্লাস ডিসপ্লের ৪ গিগাবাইট র্যামের এ ফোনে ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সুবিধা মিলবে। এতে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি সংবলিত ডিভাইসটিতে মটোরোলার সিগনেচার স্টক অ্যান্ড্রয়েড এক্সপেরিয়েন্স ব্যবহার করা হয়েছে, যা ব্যবহারকারীর স্বচ্ছ, নিরাপদ ও অ্যাড ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে। ডিভাইসটিকে বাংলাদেশের বাজারে মটোরোলার সর্বশেষ প্রযুক্তির সংযোজন বলে মনে করা হচ্ছে, যা গ্রাহক প্রত্যাশা পূরণে সক্ষম হবে।

ভিভো ভি২০ এসই:
দেশের বাজারে নতুন প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ‘ভিভো ভি২০ এসই’ প্রাক-ক্রয়াদেশের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। ডিভাইসটির দাম ধরা হয়েছে ২৬ হাজার ৯৯০ টাকা। ভিভোর নতুন এ ফোনে ম্যাজিক্যাল স্লিক ডিজাইন ব্যবহার করা হয়েছে। কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ প্রসেসর এবং মাল্টিটার্বো সমর্থিত ৮ গিগাবাইট র্যাম ও ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সুবিধা মিলবে, যা মাইক্রো এসডি কার্ডের মাধ্যমে সর্বোচ্চ ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বর্ধিত করা যাবে। ডিভাইসটিতে ৬ দশমিক ৪৪ ইঞ্চির অ্যামোলেড হ্যালো ফুলভিউ ডিসপ্লে এবং ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানিং প্রযুক্তি রয়েছে। ভিভো ভি২০ এসইতে রয়েছে সুপার নাইট, অরাস্ক্রিনলাইট ও প্রফেশনাল পোর্ট্রেট সুবিধাসহ ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। বহুমুখী ছবি তোলার জন্য এ ফোনে রয়েছে ট্রিপল এআই রিয়ার ক্যামেরা। ক্যামেরাগুলো হলো ৪৮ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের সুপার ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল এবং ২ মেগাপিক্সেলের সুপারম্যাক্রো ক্যামেরা।

রিয়েলমি সি১২
চলতি মাসের শুরুর দিকে দেশের বাজারে ‘সি’ সিরিজের নতুন স্মার্টফোন ‘রিয়েলমি সি১২’ উন্মোচন করেছে রিয়েলমি। ১০ হাজার ৯৯০ টাকা দামের ৬০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারির এ ফোন তরুণ প্রজন্মের জীবনধারাকে আরো সমুন্নত করবে বলে দাবি রিয়েলমি বাংলাদেশের। ডিভাইসটির ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির মিনি ড্রপ এইচডি প্লাস ডিসপ্লের ৮৮ দশমিক ৭ শতাংশ স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও দেবে চমত্কার ভিউইং এক্সপেরিয়েন্স। এতে ১৩ মেগাপিক্সেলের এআই ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে। যেখানে ১৩ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরার সঙ্গে চমত্কার পোর্ট্রেটের জন্য আছে একটি ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট পোর্ট্রেট লেন্স এবং একটি ৪ সেন্টিমিটারের ম্যাক্রো লেন্স। ৫ মেগাপিক্সেলের ক্রিস্টাল ক্লিয়ার সেলফি ক্যামেরায় এআই বিউটিফিকেশন, এইচডিআর মোড, পোর্ট্রেট মোড ও প্যানোসেলফি সমর্থন করে। ডিভাইসটির ১২ ন্যানোমিটার প্রযুক্তিতে তৈরি মিডিয়াটেক হেলিও জি৩৫ অক্টা-কোর প্রসেসর ২.৩ গিগাহার্টজ গতিতে কাজ করেতে পারে। ডিভাইসটিতে ৩ গিগাবাইট এলপিডিডিআর৪এক্স র্যাম ও ৩২ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজের পাশাপাশি দুটি সিম কার্ড ও ২৫৬ গিগাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ বাড়ানোর জন্য তিনটি কার্ড স্লট আছে।রিয়েলমির দাবি, উন্নততর রিয়েলমি ইউআইয়ের চমত্কার ডার্ক মোডে ফোনের ইন্টারফেস হবে আরো আকর্ষণীয়।

ওয়ালটন প্রিমো আরএম৪
চলতি মাসে দেশীয় প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ওয়ালটন নতুন একটি সাশ্রয়ী ফোনের ঘোষণা দিয়েছে। তুলনামূলক বড় পর্দা, শক্তিশালী ব্যাটারি ও ট্রিপল ক্যামেরার ‘প্রিমো আরএমফোর’ মডেলের ডিভাইসটির দাম ১০ হাজার ৫৯৯ টাকা। ডিভাইসটি প্রাক-ক্রয়াদেশকারী ক্রেতারা ১০০০ টাকা মূল্যছাড় পাচ্ছেন। ডিভাইসটির জন্য অনলাইনে ঘরে বসেই ওয়ালটন ই-প্লাজা (eplaza.waltonbd.com) থেকে ফোনটির প্রাক-ক্রয়াদেশ দেয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি দেশের যে কোনো ওয়ালটন প্লাজা, মোবাইলের ব্র্যান্ড ও রিটেইল আউটলেটে ১০০০ টাকা জমা দিয়ে ফোনটির আগাম ক্রয়াদেশ দেয়ার সুযোগ রয়েছে। ৫৯৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি সংবলিত ডিভাইসটিতে দীর্ঘ সময় পাওয়ার ব্যাকআপ মিলবে, যা ডিভাইস ব্যবহারকারী পাওয়ার ব্যাংক হিসেবেও ব্যবহারের সুবিধা পাবেন। এর অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে ৬ দশমিক ৫ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ভি-নচ ডিসপ্লে, অ্যান্ড্রয়েড ১০ অপারেটিং সিস্টেম, ১ দশমিক ৮ গিগাহার্টজের এআরএম কোর্টেক্স-এ৫৩ অক্টা-কোর প্রসেসর, ৪ গিগাবাইট র্যাম, ৬৪ গিগাবাইট ইন্টারন্যাল মেমোরি, আইএমজি পাওয়ার ভিআর জিই৮৩২০ গ্রাফিক্স, ২৫৬ গিগাবাইট মাইক্রো এসডি কার্ড সাপোর্ট, এলইডি ফ্ল্যাশযুক্ত এফ ২.০ অ্যাপারচার সমৃদ্ধ পিডিএএফ প্রযুক্তির ৫পি লেন্সযুক্ত অটোফোকাস ট্রিপল ক্যামেরা। ডিভাইসটিতে ১৩ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরার সঙ্গে ৫ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল এবং ০.৩ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর ক্যামেরা, পিডিএএফ প্রযুক্তির ৪পি লেন্সযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেলের সনি ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে।

পোকো এক্স৩ এনএফসি
দেশের বাজারে পোকো এক্স৩ এনএফসি স্মার্টফোনের পাশাপাশি পোকো এম২ এবং পোকো সি৩ মডেলের নতুন তিনটি ডিভাইস উন্মোচন করেছে স্মার্টফোন ব্র্যান্ড পোকো। ২০১৮ সালে পোকো এফ১ আনার পর দ্বিতীয়বারের মতো শাওমির সাব-ব্র্যান্ডটি দেশে নতুন স্মার্টফোন এনেছে। দেশের বাজারে পোকো এক্স৩ এনএফসির ৬ গিগাবাইট র?্যাম ও ৬৪ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ এবং ৬ গিগাবাইট র?্যাম ও ১২৮ গিগাবাইট অভ্যন্তরীণ স্টোরেজ সংস্করণ মিলবে। ডিভাইস দুটির দাম যথাক্রমে ২৫ হাজার ৯৯৯ এবং ২৭ হাজার ৯৯৯ টাকা। গেমিং অভিজ্ঞতার জন্য উপযুক্ত ডিভাইস হতে পারে পোকো এক্স৩ এনএফসি। ডিভাইসটিতে এখন পর্যন্ত কোয়ালকমের সর্বাধুনিক ও সবচেয়ে শক্তিশালী ৪জিপ্লাস স্ন্যাপড্রাগন ৭৩২জি প্রসেসর দেয়া হয়েছে। এতে ক্র্যায়ো ৪৭০ অক্টা-কোর সিপিইউ এবং অ্যাড্রেনো ৬১৮ জিপিইউ। গেমিংয়ের জন্য আছে সর্বশেষ গেম টার্বো ৩.০। পোকো এক্স৩ এনএফসি ডিভাইসটির এজ-টু-এজ ৬ দশমিক ৬৭ ইঞ্চি এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লের রিফ্রেশ রেট ১২০ হার্টজ। এতে থাকছে ইন্ডাস্ট্রি লিডিং কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। যার প্রধান ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেল, রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল, ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো এবং ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর। ভিডিওর জন্য রয়েছে ৪কে ভিডিও রেকর্ডিং, স্মুথ ভিডিও জুম, ফোকাসিং পিকিং প্রভৃতি।

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *