১২ হাজার বাংলাদেশি কর্মী নেবে জর্ডান

‘বাংলাদেশের কর্মীদের মেধা, শ্রম ও কর্তব্যনিষ্ঠা জর্ডানে অধিক সংখ্যক কর্মী নিয়োগের মূল কারণ’

পোশাক তৈরির কারখানায় সেলাইয়ের কাজ করছেন শ্রমিকেরা। ফাইল ছবি মাহমুদ হোসেন অপু/ঢাকা ট্রিবিউন

জর্ডানের সর্ববৃহৎ তৈরি পোশাক কারখানা ক্লাসিক ফ্যাশনের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর সানাল কুমার বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর) প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদের সাথে তার অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন।

এ সময় সানাল কুমার জানান, তার প্রতিষ্ঠানের ২৬ হাজার কর্মীর মধ্যে ১৬ হাজার কর্মীই বাংলাদেশের। এ প্রতিষ্ঠানে বাংলাদেশ থেকে আগামী বছর আরও ১২ হাজার কর্মী নিয়োগ করা হবে।

ভবিষ্যতে আরও বেশি কর্মী নিয়োগ করা হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “বাংলাদেশের কর্মীদের মেধা, শ্রম ও কর্তব্যনিষ্ঠা জর্ডানে অধিক সংখ্যক কর্মী নিয়োগের মূল কারণ।”

জর্ডানের তৈরি পোশাক কারখানায় বাংলাদেশের কর্মী নিয়োগ নিয়ে তিনি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের (বোয়েসেল) আন্তরিক সহযোগিতার জন্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিবকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন ও বোয়েসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল হাসান বাদল এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, ১৫ ডিসেম্বর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেছিলেন, আগামী এক বছরের মধ্যে তৈরি পোশাক (আরএমজি) খাতে ১২ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি দক্ষ কর্মী নেবে জর্ডান।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, শুধু বোয়েসেলের মাধ্যমে এসব শ্রমিক নিয়োগ করা হবে।

ড. মোমেন বলেন, “এটি আমাদের জন্য একটি ভালো সুযোগ।

বিশ্বের তৈরি পোশাক পণ্য রপ্তানিকারক দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। সেই সাথে প্রায় ৪৫ হাজার বাংলাদেশি কর্মী ইতোমধ্যে জর্ডানের তৈরি পোশাক খাতে কাজ করছেন।

এ মাসের শুরুতে জর্ডানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান জর্ডানের বৃহত্তম পোশাক কারখানা ক্লাসিক ফ্যাশন অ্যাপারেলস পরিদর্শন করেন এবং সেখানে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের অধিকার ও কল্যাণ নিশ্চিত করতে দূতাবাস সর্বদা তাদের পাশে থাকবে বলে আশ্বাস দেন।

সম্পূর্ণ সংবাদ টি পড়ুন

সূত্রঃ ঢাকা ট্রিবিউন

Source Link

1 Comment

  1. vreyro linomit
    January 12, 2021 - 2:13 pm

    Great wordpress blog here.. It’s hard to find quality writing like yours these days. I really appreciate people like you! take care

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *