৪ জিবি র‍্যামের ফোন ‘সবথেকে কম দামে’

বাংলাদেশি ব্রান্ড হিসেবে সব সময় গ্রাহকরা ওয়ালটন এর কাছ থেকে ভাল কিছু আসা করে।সেই আশা কে বাচিয়ে রাখতে ১০হাজার টাকা বাজেটে ওয়ালটন বাজারে এনেছে তাদের নতুন মোবাইল ওয়ালটন প্রিমো আর এম ৪।তো চলুন দেখা যাক মোবাইলটি কি গ্রাহকদের চাহিদা পুরন করতে পারবে নাকি।

প্রথমে আলোকপাত করা যাক মোবাইলের বিল্ড কোয়ালিটি নিয়ে।

মোবাইলটির বডি ডাইমেনশন 167 x 77.6 x 10.1 মিলিমিটার।এর ওজন মাত্র ২২১ গ্রাম।ফ্রন্টে ব্যবহার করা হয়েছে গ্লাস।এই মোবাইলটি প্লাস্টিক এর ফ্রেম দিয়ে তৈরি।যা এই বাজাটে সাধারন ব্যপার।এতে ব্যবহার করতে পারবেন ডুয়েল ন্যানো সিম কার্ড।

এতে ডিসপ্লে হিসেবে দেয়া হয়েছে ৬.৫ইঞ্চির এইচ ডি প্লাস ডিসপ্লে।ডিসপ্লেটির রেজুলেশন 1600 x 720 পিক্সেলস। এই বাজেটে এমন ডিসপ্লে অসাধারন।

এবার কথা বলা যাক মোবাইলটির হার্ড ওয়্যার সেকশন নিয়ে।এতে চিপসেট হিসেবে দেয়া হয়েছে মিডিয়া টেক হেলিও এ২৫।এটি একটি ১.৭৫গিগা হার্জ এর অক্টা কোর প্রসেসর।এর সাথে জিপিইউ হিসেবে দেয়া হয়েছে পাওয়ার বিআর জিই৮৩২০।এই বাজেটের মোবাইল হিসেবে এতে ভালই গেমিং পারফমেন্স পাওয়া যাবে আসা করা যাচ্ছে।মোবাইলটি রান করবে আন্ড্রয়েড ১০এ। সাথে রয়েছে ৪জিবি র‍্যাম এবং ৬৪জিবি রম।চাইলে ২৫৬জিবি পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

এবার আলোক পাত করা যাক মোবাইলটির ক্যামেরা নিয়ে!

মোবাইলটির পিছনে ট্রিপল ক্যামেরা সেটাপ দেয়া হয়েছে।ক্যামেরা গুলো হলো ১৫+৫+০.৩ মেগাপিক্সেলের।ভিডিও করা যাবে ফুল এইচ ডি রেজুলেশনে।সেলফি ক্যামেরা হিসেবে দেয়া হয়েছে ৮মেগা পিক্সেলের একটি ক্যামেরা।ভিডিও করা যাবে ফুল এইচ ডি রেজুলেশনে। বাজেটে ভালই ক্যামেরা সেটাপ দিয়েছে ওয়ালটন।

মোবাইলটি তে লাউডস্পিকার আছে।যেটা এই বাজেটে ভাবাই যায় নাহ।

সিকিউরিটি হিসেবে আছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর এবং ফেস আনলক।

এতে দেয়া হয়েছে ৫৯৫০মিলি আম্পিয়ার এর নন রিমুভেবল ব্যাটারি।যেটা কে চার্জ দিতে বক্স এ দেয়া হয়েছে ১০ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার।

মোবাইলটি পাওয়া যাবে ডার্ক গ্রীন,নাইট ব্ল এবং ব্ল্যাক কালারে।

বাংলাদেশের বাজারে মোবাইলটির দাম নির্ধারন করা হয়েছে ৯৫৯০ টাকা।

The post ৪ জিবি র‍্যামের ফোন ‘সবথেকে কম দামে’ appeared first on TechJano.

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *