latest

‘আমার লুক অনেক সময়ই আমার পেশায় অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়ায়’


মাত্র ১৯ বছর বয়সে মিস এশিয়া প্যাসিফিকের খেতাব জিতে বলিউডে পা রেখেছিলেন দিয়া মির্জা।

বিউটি পেজ্যান্ট জিতে খুব মসৃণভাবেই সিনেমায় ক্যারিয়ার গড়েন এই অভিনেত্রী। কিন্তু বাস্তবের চিত্রটা কিছুটা অন্যরকম। বিষয়টি দিয়া মির্জাই তুলে সামনে এনেছেন।

ক্যারিয়ার নিয়ে খোলামেলা কথা বলতে গিয়ে দিয়া মির্জা বলেন, আমার লুক অনেক সময়ই আমার পেশায় অসুবিধার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। একটি চাকরি হারিয়েছি এবং একটি চরিত্রে আমাকে কাস্ট করা হয়নি, কারণ আমি দেখতে সুন্দরী। এটি একটি অদ্ভুত ধরনের অসুবিধা। খবর: আনন্দবাজারের

গায়ের রঙ কালো কিংবা শ্যামবর্ণ বলে সিনে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ না পাওয়ার কথা নতুন নয়। তবে দিয়ার ক্ষেত্রে ঘটনা উল্টো।

এই অভিনেত্রী জানান, গায়ের রঙ ফর্সা বলে তিনি অনেক সময় অসুবিধায় পড়েছেন। তিনি যে ধরনের ছবিতে কাজ করতে চেয়েছেন, তার গায়ের রঙের জন্য সেই ধরনের ছবি করতে পারেননি।

প্রসঙ্গত, ২০০১ সালে ‘রহেনা হ্যায় তেরে দিল মে’ ছবি দিয়ে বলিউডে পা রাখেন দিয়া। অভিনেত্রী হিসেবে শতভাগ সাফল্য না পেলেও পরবর্তী সময়ে প্রযোজনা এবং বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখেন তিনি। তবে অভিনয়কে বিদায় জানাননি। আগামী দিনে আরও ভালো কাজ করবেন বলে আশা দিয়ার।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: