latest

যে খাবারে সুস্থ থাকবে কিডনি


ডিএমপি নিউজঃ কিডনির সমস্যা নিয়ে আমরা সবাই কম-বেশি চিন্তিত। ছাঁকনির ভূমিকা পালন করে কিডনি আমাদের রক্তের শুদ্ধতা বজায় রাখে। একটু অসতর্ক হলেই কিন্তু কিডনির বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। পরবর্তী কালে যা কিডনি বিকলও করে দিতে পারে। তবে আগে থেকে সচেতন হলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এমন কিছু খাবার আছে, যা কিডনি সুস্থ রাখতে ভীষণ ভাবে সাহায্য করে।

সেই খাবারগুলো সম্পর্কে জেনে নিন—

ডিমের সাদা অংশ: ডিমের সাদা অংশে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন আছে। এ ছাড়া এতে প্রচুর পরিমাণে ফসফরাস এবং অ্যামিনো অ্যাসিড আছে যা কিডনির রোগ প্রতিরোধ করে কিডনিকে সুস্থ রাখে।

আপেল: আপেল উচ্চমাত্রায় ফাইবারযুক্ত খাবার। এতে অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি উপাদান আছে যা ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল দূর করে হার্ট অ্যাটাক প্রতিরোধ করে। এ ছাড়া এটি ক্যানসারের ঝুঁকিও কমায়।

পেঁয়াজ: কিডনি সুস্থ রাখার আর একটি অন্যতম উপাদান পেঁয়াজ। এতে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড রয়েছে। যা রক্তের চর্বি দূর করে। এ ছাড়া এতে কুয়ারসেটিন আছে যা হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। পেঁয়াজে পটাশিয়াম ও প্রোটিন আছে যা কিডনির জন্যও বেশ উপকারী।

লাল ক্যাপসিকাম: লাল ক্যাপসিকামে পটাশিয়াম আছে যা কিডনি সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এই সব্জির মধ্যে ভিটামিন সি, এ, ভিটামিন বি সিক্স, ফলিক অ্যাসিড ও ফাইবার রয়েছে।

মাছ: মাছ খেলে দেহে প্রোটিনের চাহিদা পূরণ হয়। মাছে প্রচুর পরিমাণ ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড আছে যা জ্বালা কমিয়ে কিডনিকে সুস্থ রাখে।

রসুন: রসুন শরীরের জ্বালা এবং রক্তে কোলেস্টেরল কমাতে অনেক বেশি কার্যকরী। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে যা দেহের বিভিন্ন অসুবিধা দূরে রাখে। তবে রান্না করে খেলে এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট পাওয়া যায় না।

বাঁধাকপি: বাঁধাকপি কিডনিকে আরও কার্যকরী করে তুলতে সাহায্য করে। এতে রয়েছে ভিটামিন বি৬, সি, কে, ফাইবার, ফলিক অ্যাসিড। এটি শরীরে পটাশিয়ামের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

অলিভ অয়েল: অলিভ অয়েল হার্টের স্বাস্থ্য সুস্থ রাখার পাশাপাশি কিডনিও ভাল রাখে। এতে প্রচুর পরিমাণ ওলিক অ্যাসিড এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে যা অক্সিডেসন কমিয়ে কিডনি সুস্থ রাখে।

 





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: