latest

দলকে জেতাতেই মাশরাফির ভয়ডরহীন ‘ডাইভ’


দলকে জেতাতেই মাশরাফির ভয়ডরহীন ‘ডাইভ’

৯ বলে তখন গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের প্রয়োজন ২৩ রান। ফাইনাল ম্যাচ এগোচ্ছে ফাইনালের মতই। ১৫৫ রানের পুঁজি নিয়ে আপ্রাণ লড়ে যাচ্ছে জেমকন খুলনা। হাসান মাহমুদের বল এক্সট্রা কভার অঞ্চলে ঠেলে দিলেন সৈকত আলী। কিন্তু না, জোরালো শটটি চার না হয়ে আটকে গেল মাশরাফির নৈপুণ্যে!

দলকে জেতাতেই মাশরাফির ভয়ডরহীন 'ডাইভ'

আক্ষেপ নিয়ে অনেকে বলেন- চোট বোধহয় মাশরাফি শব্দের প্রতিশব্দই। ক্যারিয়ারের বড় অংশ চলে গেছে চোটের কারণে। সদ্য সমাপ্ত বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপেও মাশরাফিকে শুরু থেকে খেলতে দেয়নি এই চোট। কিন্তু তিনি কি আর তোয়াক্কা করেন চোটকে! করেন না বলেই তো ফাইনাল ম্যাচে দেখা গেল ‘তরুণ’ মাশরাফিকে, আবার চোট পাওয়া ঝুঁকি বা ভয়কে পরোয়া করার সময় নেই যার।

Also Read – যাদের খেলায় মুগ্ধ হয়েছেন বিসিবি সভাপতি

ম্যাচ শেষে আলাপকালে মাশরাফিকে প্রশ্ন করা হয় অতিমানবীয় ডাইভটি নিয়ে। এ সময় স্মিত হেসে মাশরাফি জানান, ব্যাট হাতে যে স্কোর দাঁড় করিয়েছিলেন তারা তাতে দলকে জেতাতে হলে ফিল্ডিং ইউনিটকেই ভালো কিছু করতে হত। বোলারদের সহায়তার উদ্দেশ্যে সেই কাজটিই করেছেন তিনি।

মাশরাফি বলেন, ‘এছাড়া কিছু করার ছিল না। ম্যাচ জিততে বোলারদের প্রয়োজন ছিল ফিল্ডারদের অবদান। বোলাররা স্নায়ু ধরে রেখে দারুণ জয় এনে দিয়েছে।’

মাশরাফি খুলনায় যোগ দিয়েছিলেন প্লে-অফের কিছু সময় আগে। চট্টগ্রামের কাছে লিগ পর্বে দুইবার হেরেছে তার দল। তবে প্লে-অফে এই চট্টগ্রামকেই দুইবার হারিয়ে শিরোপা পেল খুলনা।

মাশরাফি বলেন, ‘প্লে-অফে যাওয়া গুরুত্বপূর্ণ, তবে আসল খেলা শুরু হয় সেখান থেকেই। জিততে হবে, তা না হলে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ। তাদের বিপক্ষে হেরে আমরা ৩ দিন সময় পেয়েছিলাম। তখন সবাই বসেছি, আলোচনা করেছি। দারুণভাবে কামব্যাক করেছি।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *