মাশরাফির নজর এবার নড়াইলের ক্রিকেটে


মাশরাফির নজর এবার নড়াইলের ক্রিকেটে

যখন সুযোগ হয়েছিল, তখন মাঠে নিজেকে উজাড় করে দিয়েছেন। মাশরাফি বিন মুর্তজার নজর এবার মাঠের বাইরে। সংসদ সদস্য ও সমাজসেবক হিসেবে নিজ জেলা নড়াইলে একের পর এক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাওয়া জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক এবার উন্নত করতে চান নড়াইলের ক্রিকেট অঙ্গন। 

নিয়ম ভেঙে মাশরাফিকে দলে নিল ঢাকা প্লাটুন! -

সম্প্রতি মাশরাফির আয়োজনে নড়াইলে আয়োজিত হয় একটি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। পুরো টুর্নামেন্টজুড়ে দারুণ সাড়া ফেলার পর ফাইনাল ম্যাচ টিভি পর্দায় দেখেছেন পুরো দেশের ক্রিকেটপ্রেমিরা। মাশরাফি জানিয়েছেন, নড়াইল থেকে ক্রিকেটার বের করে আনার লক্ষ্যে তার এমন কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

Also Read – ইনশাআল্লাহ্‌ আমরা সিরিজ জিতব : রিয়াদ

বিডিক্রিকটাইম এর সাথে আলাপকালে মাশরাফি জানান, ‘আল্লাহ যদি বাঁচিয়ে রাখেন, সুস্থ রাখেন- সামনের বছর আবার করার ইচ্ছা আছে। একইসাথে আরও পেশাদার, আরও ভালো করা যায় কি না। ভালোর তো কোনো শেষ নেই। চেষ্টা করব খেলোয়াড়দের উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করে দিতে। স্পেসিফিক কিছু জিনিস যেন তারা শিখতে পারে।’ 

আয়োজক বা সংগঠক হিসেবে মাশরাফির সাফল্য ধরা দিবে খালি চোখেই। তবে মাশরাফি নিজেকে তখনই সফল মনে করবেন, যখন তার প্রচেষ্টা নড়াইলের ক্রিকেটারদের উন্নতি সাধন করবে। তিনি বলেন, ‘সাফল্যের কোনো শেষ নেই। সাফল্যের জায়গায় যেতে চাই না। টুর্নামেন্ট কেমন করলাম এটা আমার কাছে ইস্যু না। ইস্যু হল আমি কী অর্জন করেছি। আমাদের উদ্দেশ্য ছিল- স্থানীয় ক্রিকেটাররা কোন পরিস্থিতিতে আছে তাদেরকে তা বোঝানো, তাদেরকে দেখানো। তারা বুঝতে পারলেই আমি সফল। আয়োজনের দিক থেকে আমি মোর দ্যান হ্যাপি। যে সহযোগিতা পেয়েছি তা অবিশ্বাস্য।’

মাশরাফি বলেন, ‘আগে থেকেই নড়াইলের মানুষ খেলাধুলার জন্য বিখ্যাত। প্রথমবার এমন কিছু পেয়ে আমাদের দর্শকরাও দেখিয়ে দিয়েছে যে এই ধরনের টুর্নামেন্ট হলে তারা মাঠে আসতে প্রস্তুত, খেলোয়াড়দের সমর্থন দিতে প্রস্তুত। এই পরিবেশ ধরে রাখলে আমাদের নড়াইল থেকে আরও খেলোয়াড় বের হবে।’

বল বাই বল লাইভ স্কোর পেতে আর নয় বিদেশি অ্যাপ। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক খবর এবং বল বাই বল লাইভ স্কোর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে BDCricTime সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান ক্রিকেট অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

 



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *