কঙ্গনার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ! – এখন সময়


বলিউডের বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে এবার চুরির অভিযোগ উঠল।

অনুমতি না নিয়ে আশিস কউল নামের এক লেখকের গল্প থেকে সিনেমা তৈরির ঘোষণা দেয়ায় এ অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে কপিরাইট লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে।

লেখক আশিস নিজেই কঙ্গনার বিরুদ্ধে চৌর্যবৃত্তির এ অভিযোগ এনেছেন বলে আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার কঙ্গনা তার পরবর্তী ছবির সিক্যুয়েল ঘোষণা করেন। তিনি জানান, এ বার আসতে চলেছে ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’-র পরবর্তী অংশ।

আসন্ন ছবির নাম ‘মণিকর্ণিকা রিটার্নস: দ্য লেজেন্ড অব দিদ্দা’ বলেও জানান কঙ্গনা। এর ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই কপিরাইট লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠল কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে।

নির্লজ্জের মতো তার সম্মতি ছাড়া এই কাজ করা হয়েছে, এমনই দাবি লেখকের।

আশিসের দাবি, তার বই ‘দিদ্দা— কাশ্মীর কি যোদ্ধা রানি’ বই থেকেই কঙ্গনার এই সিনেমা তৈরি হতে চলেছে।

এ লেখকের ভাষ্য, তিনি প্রথমে ইংরেজিতে ‘দিদ্দা, দি ওয়ারিয়র কুইন অব কাশ্মীর’ বলে একটি বই লিখেছিলেন। পরে ওই বইয়ের হিন্দি সংস্করণের মুখবন্ধ লিখে দেওয়ার জন্য তিনি কঙ্গনাকে অনুরোধ করেন। বইয়ের বিশেষ কিছু অংশ কঙ্গনা এবং তার টিমকে মেল করে পাঠিয়েছিলেন তিনি।কিন্তু কঙ্গনা সেই মেলের কোনো উত্তর দেননি।ওই মেলের স্ক্রিনশটও দেখিয়েছেন তিনি।

আশিসের দাবি, তিনি তার বই নিয়ে এর আগে বহু ট্যুইট করেছেন। প্রতিবার কঙ্গনাকে ট্যাগ করেছেন। কিন্তু কোনো বারই উত্তর পাননি। অথচ সেই কঙ্গনাই এ বার তার বই থেকে ছবি করতে চলেছেন!

লেখকের অভিযোগ, যে কঙ্গনা সব সময় অন্যদের অধিকার নিয়ে প্রতিবাদে মুখর হন, তিনি নিজেই এ বার অন্যের অধিকার হরণ করছেন। কারণ কাহিনিকার হিসেবে আশিসের উল্লেখ করা হয়নি। তার সঙ্গে কথা বলে নেওয়া হয়নি অনুমতিও।

আশিস আরও জানান, তার বই থেকে ছবি করার ব্যাপারে ইতিমধ্যেই কথা চলছে। রিলায়্যান্সের কিছু কর্তার সঙ্গে তার কথাও হয়েছে। কিন্তু লকডাউনের জন্য কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

তিনি জানান, বড় প্রোডাকশন হাউস তার লেখা গল্প থেকে ছবি তৈরি করবেন- এমন স্বপ্ন দেখছিলেন তিনি। তার আগেই কঙ্গনা একই গল্প নিয়ে ছবি ঘোষণা করায় জটিলতা তৈরি হলো।

তবে কঙ্গনা এবং ছবির প্রযোজক যদি তার অভিযোগের উত্তর না দেন, তবে আইনি লড়াইয়ের পথে যাবেন বলে জানিয়েছেন আশিস।

উল্লেখ্য কঙ্গনা রানাউতের ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ মু্ক্তি পেয়েছিল ২০১৯ সালে। আর্থিক লাভের দিক দিয়ে ছবিটি খুব বেশি সফল ছিল না বক্স অফিসে।

কঙ্গনার ছবির সঙ্গে চুরির অভিযোগ এর আগেও উঠেছে। ২০১৯ সালে মুক্তি পেয়েছিল তার ‘জাজমেন্টাল হ্যায় ক্যয়া’। হাঙ্গেরির শিল্পী ফ্লোরা বোরসি অভিযোগ করেছিলেন ছবির একটি পোস্টার তার কাজ থেকে চুরি করা।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *