latest

অপশক্তির বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে: কাদের


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বহুধা বিভক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ করে অভিন্ন প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তির পৃষ্ঠপোষকতায় উগ্র-সাম্প্রদায়িকতা দেশের হাজার বছরের লালিত ঐতিহ্যকে নষ্ট করতে চায়, এদের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক উপকমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন তিনি। ওবায়দুল কাদের তাঁর সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

দেশবিরোধী অপশক্তি মুক্তিযুদ্ধের অবিনাশী চেতনা নস্যাতের অপতৎপরতা অব্যাহত রেখেছে; যা দুঃখজনক উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এই অপশক্তি গণতন্ত্র, প্রগতি ও উন্নয়নের প্রধানতম প্রতিবন্ধকতা।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা আজ বিভক্তির মধ্যে আছেন। এ বিভক্তি মুক্তিযুদ্ধের অর্জন এবং চেতনাকে দুর্বল করে দিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্য যে, স্বাধীনতার ৫০ বছরে এসেও দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত্রে লিপ্ত সাম্প্রদায়িক শক্তি। এই অপশক্তিকে মোকাবিলা করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে জাতিকে স্বাধীনতার স্বপ্নসাধ বাস্তবায়নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহবান জানান তিনি।

বিএনপি নেতারা হঠাৎ ঘুম থেকে জেগে চিরাচরিত মিথ্যাচারের রেকর্ড বাজাচ্ছে দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণ দ্বারা প্রত্যাখ্যান হয়ে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী অপশক্তির প্রতিভূ বিএনপি বারবার প্রতারণা ও চাতুর্যের আশ্রয় নিচ্ছে। তাদের চাতুর্য আছে কিন্তু নৈতিকতা নেই- জনগণের মুখোমুখি দাঁড়াবার সৎ সাহস এবং রাজনৈতিক অবস্থানও নেই।

৩য় ও ৪র্থ ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে যারা বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচন করতে চাচ্ছে, তাদেরকে দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি না করে অনতিবিলম্বে সরে দাঁড়াতে কঠোর নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের স্বার্থে সকলকে নৌকার পক্ষে কাজ করতে হবে। সব ভেদাভেদ ভুলে আওয়ামী লীগের নৌকার প্রার্থীর হয়ে কাজ করতে হবে। যারা বিদ্রোহ করছে বা করবে তাদের আর কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। দলের সিদ্ধান্ত মেনেই রাজনীতি করতে হবে বলেও জানান তিনি।

২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে মুক্তিযোদ্ধাবিষয়ক উপকমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপকমিটির চেয়ারম্যান রশিদুল আলম এবং সদস্য সচিব ও আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাসসহ অন্যান্য সদস্যরা।

এছাড়া মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক উপ-কমিটির প্রথম সভায় কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। এগুলো হলো- আগামীকাল (বুধবার) সকাল ১০টায় ধানমন্ডি ৩২ নম্বর সড়কে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। ১ মার্চ ২০২১ গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়ায় জাতির পিতার সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। সারা দেশের মুক্তিযাদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান, উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক উপ-কমিটি বছরব্যাপী সমাবেশ করবে, মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে সংকলন ও স্মরণিকা প্রকাশ করা।

সারাবাংলা/এনআর/এএম





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *