ধনিক শ্রেণির ভ্যাকিসন নিশ্চিত, সাধারণ মানুষের নয়: ফখরুল


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সাধারণ মানুষ ভ্যাকসিন পাবে কি না, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে জিয়াউর রহমানের ৮৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘ফ্রি মেডিক্যাল ক্যাম্প’ উদ্বোধনকালে তিনি এই সংশয় প্রকাশ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বার বার করে বলেছিলাম, ভ্যাকসিন নিয়ে একটা পরিকল্পনা দেওয়া হোক, একটা রোডম্যাপ দেওয়া হোক—তার কোনোটাই দেওয়া হয়নি। সাধারণ মানুষ ভ্যাকসিন পাবে কি না—এ ব্যাপারে আমরা এখনো নিশ্চিত নই।’

‘তবে ধনিক শ্রেণি পাবেন, সেটা প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। সেজন্যই আমরা মনে করি এই সরকার জনগণের বিরুদ্ধের সরকার, জনগণের স্বার্থের বিরুদ্ধে কাজ করছে, জনগনের অধিকারগুলোকে কেড়ে নিচ্ছে’—বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন যখন সারা পৃথিবীতে আসতে শুরু করেছে, অন্যান্য দেশে যখন বিনা পয়সা ভ্যাকসিন দিচ্ছে। তখন এই আওয়ামী লীগ তার নিজস্ব লোককে বেশি করে মুনাফা পাইয়ে দেওয়ার জন্য জনগণের যে টাকা সেই টাকা থেকে প্রতি ভ্যাকসিনে এক ডলার বেশি করে নিচ্ছে।’

বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, অধ্যাপক সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, সহ স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের সদস্য সচিব নিপুণ রায় চৌধুরী, ড্যাব নেতা অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান সরদার, অধ্যাপক ডা. নজরুল ইসলাম, ডা. সাইফুল ইসলাম, ডা. সাইফুদ্দিন নেছার, ডা. মনোয়ারুল কাদির ও ডা. জাহিদুল কবির প্রমুখ।

এর আগে সকালে রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবরে পুস্পার্ঘ অর্পণের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। এই ভ্যাকসিন নিয়েও তারা আবার লুটপাটে নিমগ্ন হযেছে, তারা দুর্নীতি করছে। দুর্নীতির কারণেই এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করাটা টোটালি কঠিন হয়ে গেছে, এটা তারা সহজে করতে পারবে না।’

সারাবাংলা/এজেড/এমআই





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *