latest

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে পরিসংখ্যান


বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে পরিসংখ্যান

দীর্ঘদিনের বিরতি কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে যাছে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে যাচ্ছে টাইগাররা। বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় প্রথম ম্যাচ দিয়ে সিরিজ শুরু করবে দু’দল।

চূড়ান্ত হল বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের সূচি

সিরিজ শুরুর প্রাক্কালে এক নজরে দেখে নেওয়া যাক দু’দলের পরিসংখ্যান

Also Read – সিরিজের মাঝেপথেই ‘৫’ ক্রিকেটারকে ছেড়ে দিল শ্রীলঙ্কা

হেড টু হেড:

এখন পর্যন্ত দুই দল ৩৮ টি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে। যার মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২১ ম্যাচে ও বাংলাদেশ ১৫ ম্যাচে জয়লাভ করেছে। বাকি দুই ম্যাচ হয়েছে পরিত্যক্ত। যদিও সর্বশেষ পাঁচ মোকাবেলায় পাঁচবারই জয়ের হাসি হেসেছে টাইগাররা।

দলীয় সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন:

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ ৩২২ রান।  টনটনে গেল বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দেওয়া ৩২২ রানের লক্ষ্য ৭ উইকেট ও ৪২ বল হাতে রেখেই পূর্ণ করেছিল মাশরাফিবাহিনী। ওয়েস্ট ইন্ডিজের  বিপক্ষে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ডও বিশ্বকাপে। ২০১১ বিশ্বকাপে মিরপুরে মাত্র ৫৮ রানে অল আউট হয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

অন্যদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের  দলীয় সর্বোচ্চ ৭ উইকেটে ৩৩৮ রান। ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে এ রান সংগ্রহ করেছিল তারা। বাংলাদেশের বিপক্ষে ক্যারিবীয়দের দলীয় সর্বনিম্ন রান ৬১। ২০১১ সালে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মাত্র ২২ ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৬১ রানে অল আউট করেছিল বাংলাদেশ।

সবচেয়ে বড় জয়:

২০১২ সালে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৬০ রানে হারিয়ে ছিল বাংলাদেশ যা রানের হিসেবে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সবচেয়ে বড় জয় এবং উইন্ডিজের দেওয়া ৬২ রানের টার্গেট ১৮০ বল হাতে রেখে ৮ উইকেটের জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ যা এখন পর্যন্ত উইকেটের হিসেবে সবচেয়ে বড় জয়। এছাড়া আরও দুটি ম্যাচে ৮ উইকেটে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

২০১৪ সালে গ্রানাডায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৭৭ রানের জয় পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এটিই রানের হিসাবে টাইগারদের বিপক্ষে সফরকারীদের সবচেয়ে বড় জয়। উইকেটের হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সবচেয়ে বড় জয় হলো ১০ উইকেটের জয়। ২০০৬ সালে বাংলাদেশে দেওয়া ১৬২ রানের লক্ষ্য কোনো উইকেট না হারিয়ে টপকে গিয়েছিল ওয়েস্ট ন্ডিজ।

সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক:

দুই দলের মোকাবেলায় ব্যাট হাতে সবচেয়ে সফল তামিম ইকবাল। এখন পর্যন্ত ২৬ ম্যাচ খেলে ৪০.৫৭ গড়ে ৯৩৩ রান করেছেন তিনি। উইন্ডিজের বিপক্ষে তার সর্বোচ্চ ১৩০ রান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক  শাই হোপ। মাত্র ১০ ইনিংস ব্যাট করে ৯৪.৭৫ গড়ে ৭৫৮ রান করেছেন তিনি। বাংলাদেশের বিপক্ষে তিনটি শতক আছে তার।  হোপের ইনিংস সর্বোচ্চ ১৪৬* রান। যদিও এ সিরিজের দলে নেই তিনি।

সর্বোচ্চ উইকেট:

দু’দলের মোকাবেলায় বল হাতে সবচেয়ে সফল কেমার রোচ ও মাশরাফি বিন মুর্তাজা। দুজনেরই উইকেটসংখ্যা ৩০। বাংলাদেশের হয়ে সাকিব আল হাসান ও তাপস বৈশ্য এক ইনিংসে ১৬ রানে ৪ উইকেট লাভ করেছেন  যা ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যেকোনো বাংলাদেশি বোলারের সেরা বোলিং ফিগার। অন্যদিকে ক্যারিবীয়দের পক্ষে পেসার মারভাইন  ডিলন ২৯ রানে ৫ উইকেট লাভ করেছেন যা বাংলাদেশির বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোনো বোলারের সেরা বোলিং ফিগার।

সর্বোচ্চ ডিসমিসাল:

বাংলাদেশের পক্ষে মুশফিকুর রহিম সর্বোচ্চ ডিসমিসালের মালিক। ২৬ ম্যাচে মুশফিকের ডিসমিসালের সংখ্যা ৩১। সফরকারী দলের সাবেক উইকেট রক্ষক রিডলি জ্যাকবস ১০ ম্যাচে ২০ ডিসমিসাল করে বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ডিসমিসাল করা ক্যারিবিয়ান।

-তথ্য সংগ্রহ ও সংকলনে শোয়েব আক্তার



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *