দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা

প্রায় ৮ বছর ধরে দক্ষিণ আফ্রিকার জোহান্সবার্গের ব্রিক্সটনে ব্যবসা করছিলেন নিহত আবদুল হক

দক্ষিণ আফিকার জোহান্সবার্গের ব্রিক্সটনে আবদুল হক (৩০) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে দুবৃর্ত্তরা।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় সকাল ১০ টায় তাকে হত্যা করা হয়।

নিহত আবদুল হক বেগমগঞ্জ উপজেলার মিরওয়ারিশপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা রফিক উল্যার ছেলে।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৮ বছর ধরে দক্ষিণ আফ্রিকার জোহান্সবার্গের ব্রিক্সটনে ব্যবসা করছিলেন নিহত আবদুল হক। চার মাস পূর্বে দেশের বাড়িতে আসেন। কিছুদিন আগে আবার দক্ষিণ আফ্রিকায় ফিরে যান তিনি।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে একদল দুবৃর্ত্ত তাকে ডেকে নিয়ে পাশ্ববর্তী স্কুলের বাউন্ডারির ভেতর নির্জনস্থানে পিটিয়ে ও ইট দিয়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করে ফেলে যায়। খবর পেয়ে নিহতের মরদেহ ব্রিক্সটন পুলিশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। তার সাথে সোমালীয় এক নাগরিকের দোকানের বিল্ডিং নিয়ে বিরোধ ছিল।

অপরদিকে, স্ত্রীর সাথে বনিবনা না হওয়ায় তার স্ত্রীকে তালাক দেয়ার কথা ছিলো। এ জন্য বাড়িতে টাকাও পাঠিয়েছিলেন তিনি। তার স্ত্রীর কয়েকজন আত্মীয় দক্ষিণ আফ্রিকায় অবস্থান করছেন।

তবে কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে কিংবা কারা হত্যা করেছে তা কেউ জানাতে পারেনি। এদিকে নিহতের মৃত্যুর খবর বাড়িতে পৌঁছলে, এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

অন্যদিকে, এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ৪ বছরে দেশটিতে ৪ শতাধিকের বেশি বাংলাদেশি ব্যবসাসংক্রান্ত বিরোধের জেরে হত্যার শিকার হয়েছে।

সম্পূর্ণ সংবাদ টি পড়ুন

সূত্রঃ ঢাকা ট্রিবিউন

Source Link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: