latest

বন্ধুত্ব দৃঢ় হোক সহযোগিতার বন্ধনে

বন্ধু আশ্রম ও হাসপাতাল করাসহ বিভিন্ন কল্যাণমূলক কাজ বাস্তবায়নের অঙ্গীকার করেছে এসএসসি ব্যাচ ১৯৮৬ বাংলাদেশ। প্রথম বর্ষপূর্তিতে রাজধানীর উপকণ্ঠে প্রিয়াংকা শুটিং কমপ্লেক্সে সারাদিনের উৎসবে এ অঙ্গীকার করেন সংগঠনের সদস্যরা।

উদ্বোধন পর্বে বক্তৃতা করেন উৎসব চেয়ারম্যান ইলিয়াস আলী মোল্লা এমপি, আহ্বায়ক ও গ্রুপের স্বপ্নদ্রষ্টা আশরাফুল হক, সদস্য সচিব নজরুল কবীর এবং অন্যান্যরা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মো. শহীদুল্লাহ সিদ্দিকী।

তারা জানান, ১৯৮৬ সালে সারাদেশ থেকে এসএসসি পাস করা ৯ হাজারের বেশি বন্ধু এই প্ল্যাটফর্মে যুক্ত। সংগঠনের ৫০ জনের বেশি চিকিৎসকে নিয়ে একটি হাসপাতাল তৈরি করা হবে। হাসপাতাল সব মানুষের চিকিৎসার জন্য উন্মুক্ত রাখা হবে।

সংগঠনের সদস্যরা বলেন, বয়স্ক নিসঙ্গ মানুষের জন্য বন্ধু আশ্রম তৈরি করা হবে রাজধানীতে। পরবর্তীতে এর বাইরেও হাসপাতাল এবং বন্ধু আশ্রম তৈরির পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। ঢাকায় একটি ডরমেটরিও করার পরিকল্পনা রয়েছে। চিকিৎসক, প্রকৌশলী, ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বন্ধুরা মিলে নিজেদের অর্থ দিয়ে এসব উদ্যোগ বাস্তবায়ন করবেন।

প্রথম বর্ষপূর্তি উৎসবে বন্ধুদের সঙ্গে আনন্দে মাতেন দেশের উচ্চ পর্যায়ে থাকা বিশিষ্টজন এবং শিল্প-সাহিত্য ও ক্রীড়াঙ্গনের তারকারা।

‘এসএসসি ব্যাচ-১৯৮৬ বাংলাদেশ’ এর প্রথম বর্ষপূর্তি উৎসবের প্রতিপাদ্য- ‘দৃঢ় হোক বন্ধুত্ব সহযোগিতার বন্ধনে’। আয়োজনে ছিল- পরিচিতি ও পুনর্মিলনী, উদ্বোধন পর্ব, মানবিকতায় ’৮৬ ও ডক্টর্স হেল্পলাইনসহ বিভিন্ন স্টল, এডমিন প্যানেলের সংবর্ধনা, যুগলবন্দি সংবর্ধনা, ’৮৬ ফাউন্ডেশন ও বন্ধু সংসদ বিষয়ে সাংগঠনিক অধিবেশন, ঢাকা ঘোষণা পাঠ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং র্যাফেল ড্র।

তিন যুগ আগে সারা বাংলাদেশ থেকে এসএসসি পাস করা বন্ধুরা এরই মধ্যে নানা কর্মকাণ্ড করছেন। সামাজসেবা, চিকিৎসাসেবা, সাংস্কৃতিক কর্মসূচি, দিবস উদযাপনসহ কাজগুলোর মধ্য দিয়ে ‘এসএসসি ব্যাচ ১৯৮৬ বাংলাদেশ’ মানুষের মন জয় করেছে।

সম্পূর্ণ সংবাদ টি পড়ুন

 

Source Link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *