করোনায় আক্রান্ত বাংলাদেশে না আসা শাই হোপ


করোনায় আক্রান্ত বাংলাদেশে না আসা শাই হোপ

বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি শঙ্কা জাগিয়েছিল তার মনে। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দলের বাংলাদেশ সফরে আসেননি শাই হোপ। কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস, ক্যারিবীয়দের বাংলাদেশ সফর শেষ হওয়ার আগেই ছোঁয়াচে ভাইরাসটি সংক্রমিত হয়েছে হোপের দেহে! 

করোনায় আক্রান্ত বাংলাদেশে না আসা শাই হোপ

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বার্বাডোজ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন নিশ্চিত করেছে তার করোনা আক্রান্ত হওয়ার তথ্য। শাই হোপ ছাড়াও তার ভাই কাইল হোপও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

Also Read – টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার সম্পূর্ণ ভিন্ন দুই স্কোয়াড

আগামী মাসে অ্যান্টিগায় শুরু হবে সুপার ফিফটি কাপ। বাংলাদেশ সফরের জন্য বায়োবাবলে আপত্তি থাকলেও ঐ টুর্নামেন্টের জন্য বায়োবাবলে যেতেই হত হোপকে। এরই ধারাবাহিকতায় করোনা পরীক্ষা করা হলে তার দেহে মহামারি সৃষ্টিকারী ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। তাই টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে পড়েছেন তিনি।

করোনা পরিস্থিতির কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন সফরকারী দলের ১০ ক্রিকেটার। এছাড়া ব্যক্তিগত কারণে খেলতে অপারগ ছিলেন ২ ক্রিকেটার। মোট ১২ জন ক্রিকেটার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন। করোনার কারণে যে ১০ জন বাংলাদেশ সফরে আসেননি, তাদেরই একজন হোপ।

হোপ ছাড়াও বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতিতে শঙ্কা প্রকাশ করে সিরিজ থেকে সরে দাঁড়ান টেস্ট অধিনায়ক জেসন হোল্ডার, কাইরন পোলার্ড, ড্যারেন ব্রাভো, শামার ব্রুকস, রস্টন চেজ, শেলডন কটরেল, এভিন লুইস, শিমরন হেটমেয়ার ও নিকোলাস পুরান।

করোনার কথা বিবেচনা করে খেলোয়াড়দের বিদেশ সফরের ব্যাপারে স্বাধীনতা দিয়ে রেখেছে সিডব্লিউআই। তাই কোনো খেলোয়াড় বিদেশ সফরে যেতে না চাইলে তাকে বোর্ড জোর করবে না বা পরবর্তী দল বাছাইয়ে খেলোয়াড়দের এমন সিদ্ধান্ত কোনো প্রভাব ফেলবে না। মূলত এ কারণেই এক ঝাঁক তারকা বাংলাদেশ সফর থেকে নিজেদের সরিয়ে নেওয়ার মত দুঃসাহসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তবে এই স্বাধীনতা উপভোগ সত্ত্বেও করোনার হাত থেকে বাঁচতে পারলেন না হোপ।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *