না খেলেই বাংলাদেশ ছাড়লেন ওয়ালশ জুনিয়র


না খেলেই বাংলাদেশ ছাড়লেন ওয়ালশ জুনিয়র

বাংলাদেশে এসে করোনা ‘পজিটিভ’ শনাক্ত হলেও অবশেষে করোনা ‘নেগেটিভ’ সার্টিফিকেট নিয়ে দেশে ফিরে গেছেন ক্যারিবীয় ক্রিকেটার হায়ডেন ওয়ালশ জুনিয়র। করোনামুক্ত হয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

করোনামুক্ত হয়ে বাংলাদেশ ছাড়লেন ওয়ালশ জুনিয়র

করোনা আক্রান্ত হয়ে বেশ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন ওয়ালশ জুনিয়র। করোনামুক্ত হয়ে তাই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলে দেশে ফিরেছেন জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে দেওয়া এক বার্তায় ওয়ালশ জুনিয়র বলেন, ‘সুসংবাদ হল আমি করোনামুক্ত হয়ে গিয়েছি! সবাইকে আপনাদের প্রার্থনা, ভালোবাসা ও সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। বিশেষ করে সৃষ্টিকর্তাকে, আমাকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য।’

Also Read – জুয়ার ওয়েবসাইট দেখাচ্ছে করাচি টেস্ট, দুশ্চিন্তায় পিসিবি

তিনি আরও বলেন, ‘জীবনের শিক্ষা হল : স্বাস্থ্যই মূল সম্পদ। মাস্ক পরুন, নিরাপদ থাকুন।’

গত ১০ জানুয়ারি বাংলাদেশে পা রাখার পর প্রথম করোনা পরীক্ষায় ‘নেগেটিভ’ ছিলেন সফরকারী দলের সবাই। তবে দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় ওয়ালশ জুনিয়রের দেহে করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়। নিশ্চিত হওয়ার জন্য ফের পরীক্ষা করা হলে সেই পরীক্ষায়ও ফলাফল ‘পজিটিভ’ আসে। ১০ জানুয়ারি থেকে ওয়ালশ জুনিয়র সতীর্থ বা অন্য কারও সাথে মেলামেশা করেননি। বাংলাদেশে পা রেখে ক্যারিবীয়রা ৩ দিন আইসোলেশনে ছিল। আইসোলেশনে থাকাকালেই প্রথমবার করোনা পরীক্ষায় পজিটিভ হন তিনি।

ওয়ালশ জুনিয়র ‘পজিটিভ’ হলেও করোনা পরীক্ষায় স্কোয়াডের বাকি সব খেলোয়াড় এবং কোচ ও কর্মকর্তারা ‘নেগেটিভ’ ফল পেয়ে মাঠের লড়াই শুরু করেন। ওয়ানডে সিরিজ শেষ করে এখন টেস্ট সিরিজের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ক্যারিবীয়রা।

২৮ বছর বয়সী এই স্পিনার ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১০টি ওয়ানডে ও ১৭টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। তবে বাংলাদেশে এসে এবার আর খেলা হয়নি তার। করোনা আক্রান্ত হওয়ায় ছিটকে পড়েন ওয়ানডে সিরিজ থেকে। তবে ওয়ানডে সিরিজ শেষ হতেই করোনামুক্ত হয়ে নিজ দেশে পাড়ি জমিয়েছেন তিনি। 

 





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *