Narayan Debnath drew Bantul sitting in the hospital bed


Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: February 2, 2021 10:43 pm|    Updated: February 2, 2021 10:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকদিন ধরেই অসুস্থ পদ্মশ্রী প্রাপ্ত শিশু সাহিত্যিক তথা কার্টুনিস্ট নারায়ণ দেবনাথ (Narayan Debnath)। কিন্তু শারীরিক অসুস্থতা যে শিল্পীর কলমকে থামাতে পারে না, তার প্রমাণ দিলেন তিনিই। হাসপাতালের বেডে বসেই মুহূর্তে আঁকলেন বাটুলের ছবি।

একশো ছুঁইছুঁই নারায়ণ দেবনাথ গত ২৫ জানুয়ারি থেকেই অসুস্থ। বার্ধক্যজনিত নানা অসুখের পাশাপাশি ছিল সর্দি। তাই ঝুঁকি না নিয়ে তাঁর করোনা (Corona Virus)পরীক্ষা করানো হয়েছিল। শিল্পীর শিবপুরের বাড়িতে গিয়ে তাঁর সোয়াব স্যাম্পেল সংগ্রহ করেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু করোনা (COVID-19) পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছিল। সেই খবরে সাময়িকভাবে স্বস্তি পেয়েছিলেন শিল্পীর অনুরাগী ও গুণমুগ্ধরা। কিন্তু পরে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। সেই কারণে তাঁকে ভরতি করা হয় হাসপাতালে। তাঁর হৃদযন্ত্র ও কিডনিতেও সমস্যা ছিল। তাই চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয়েছিল মেডিক্যাল বোর্ড। বর্তমানে অনেকটাই সুস্থ তিনি। তাঁকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি পাঠানোর পরিকল্পনা করছেন চিকিৎসকরা। তবে তার আগে নারায়ণবাবুর স্মৃতিশক্তি পরীক্ষা করে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। বিখ্যাত শিশু সাহিত্যিকের হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয় কাগজ-কলম। বলা হয়, তাঁর কোনও সৃষ্টি ফুটিয়ে তুলতে।

[আরও পড়ুন: বুথের হাল কী? ১০ তারিখের মধ্যে জানাতে হবে জেলা শাসকদের, নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের]

কাগজ কলম পেয়ে এক মুহূর্তও অপেক্ষা করেননি তিনি। সঙ্গে সঙ্গে সাদা কাগজে ফুটিয়ে তুলেছেন বাটুলকে। নারায়ণবাবুর এই ছবি অনেকটা নিশ্চিত করেছে পরিবারের সদস্য ও ডাক্তারদের। চিকিৎসকদের কথায়, এই বয়সে স্মৃতিশক্তি দুর্বল হয়ে পড়া অত্যন্ত স্বাভাবিক। কিন্তু নারায়ণবাবুর ক্ষেত্রে তেমনটা হয়নি। এখনও জরা গ্রাস করতে পারেননি তাঁকে। যা নিঃসন্দেহে ইতিবাচক ইঙ্গিত দেয়।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: সম্পর্কে রাজি না হওয়ায় প্রাক্তন বান্ধবীর উপর অ্যাসিড হামলা, গ্রেপ্তার প্রতিবেশী যুবক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *