এক পেসার খেলানোর পক্ষে মুখ খুললেন ডমিঙ্গো


এক পেসার খেলানোর পক্ষে মুখ খুললেন ডমিঙ্গো

ঘরের মাঠের টেস্টে বাংলাদেশ স্পিন-নির্ভর দল। একাদশে কেবলমাত্র একজন পেসার নিয়ে খেলায় বেশ সমালোচনাও শুনতে। তবে এই সিদ্ধান্তের পক্ষেই সাফাই গেয়েছেন বাংলাদেশের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

এক পেসার খেলানোর পক্ষে মুখ খুললেন ডমিঙ্গো
রাসেল ডমিঙ্গো

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ দলে একমাত্র পেসার হিসেবে আছেন কেবল মুস্তাফিজুর রহমান। প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম দুইটি উইকেটই মুস্তাফিজ শিকার করার পরে কেবল এক পেসার নিয়ে খেলার সমালোচনা আরও বেশি হয়। তাছাড়া, ঘরের মাঠে সর্বশেষ টেস্টে আবু জায়েদ রাহী ৪টি উইকেট শিকার করেও একাদশ থেকে বাদ পড়াও এই সমালোচনায় আরও ঘি ঢালে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের একাদশে আছেন দুইজন পেসার এবং দুইজনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যথেষ্ট অভিজ্ঞ। প্রথম ইনিংসে তারা দুইজন একটি করে দুইটি ও দ্বিতীয় ইনিংসে কেবল গ্যাব্রিয়েল দুইটি উইকেট পেয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের অভিজ্ঞ এই পেসারেরও সফল হতে না পারার কারণ হিসেবে ডমিঙ্গো পিচকেই দোষ দেন।

Also Read – সারাদিন ব্যাটিং করে হার এড়ানোর ফন্দি আঁটছেন কর্নওয়াল

বাংলাদেশের একাদশে আরও পেসার যোগ হলে বোলিং আরও আক্রমণাত্মক হবে বললেও ডমিঙ্গোর মতে সেটা এই পিচে সম্ভব না। তিনি বলেন,

‘অবশ্যই। চেষ্টা করছি দলে ফাস্ট বোলারদের নেওয়ার। কিন্তু এমন উইকেটে অবশ্য কঠিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের একাদশ দেখুন, তাদের কেমার রোচ ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের মত অনেক অভিজ্ঞ দুই ফাস্ট বোলার আছে। কিন্তু ২৩০ রানের মত খরচ করে তারা মাত্র ২ উইকেট পেয়েছে এই পিচে।’

ঘরের মাঠে টেস্ট একাদশে কেবল এক পেসার রাখার পক্ষে ডমিঙ্গো বলেন, ‘এই উইকেটে ফাস্ট বোলারদের ভালো করা কঠিন। গতি নেই, বাউন্স নেই, এসব বিবেচনা করেই আমরা ঘরের মাঠের টেস্ট একাদশে পেসারদের বিবেচনা করি।’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যকার দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট পঞ্চম দিনে গড়িয়েছে। শেষ দিনে জয়ের জন্য বাংলাদেশের প্রয়োজন ৭টি উইকেট এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রয়োজন ২৮৫ রান।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *