latest

নিলামের সময় ‘বমি’ পাচ্ছিল রিচার্ডসনের


নিলামের সময় ‘বমি’ পাচ্ছিল রিচার্ডসনের

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে চড়া মূল্য পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার ঝাই রিচার্ডসন। তাকে দলে টানতে রীতিমতো আঁটঘাঁট বেঁধে নেমেছিল পাঞ্জাব কিংস। আকাশছোঁয়া মূল্যে বিক্রি হলেও নিলামের সময়ে দুশ্চিন্তায় বমি পাচ্ছিল বলে অকপটে স্বীকার করেছেন রিচার্ডসন।

নিলামের সময় 'বমি' পাচ্ছিল রিচার্ডসনের

গত বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হয়েছিল আইপিএলের চতুর্দশ আসরের নিলাম। এই নিলামে চতুর্থ সর্বোচ্চ ১৪ কোটি রুপিতে দল পেয়েছেন রিচার্ডসন। তারচেয়ে বেশি মূল্যে দল পেয়েছেন কেবল ৩ জন ক্রিকেটার। সর্বোচ্চ ১৬ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে রাজস্থান রয়্যালস কিনেছে ক্রিস মরিসকে। ১৫ কোটি রুপিতে কাইল জেমিসন ও ১৪ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে গ্লে ম্যাক্সওয়েলকে দলে ভিড়িয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

Also Read – লিজেন্ডস ট্রফির লভ্যাংশ পাচ্ছেন দুস্থ ক্রিকেটাররা

আইপিএল নিলামে রিচার্ডসনের ভিত্তিমূল্য ছিল দেড় কোটি রুপি। আইপিএল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ও পাঞ্জাব কিংসের টানাটানিতে সেই মূল্য গিয়ে ঠেকেছে ১৪ কোটি রুপিতে। শেষ পর্যন্ত পাঞ্জাব দলে ভেড়ায় রিচার্ডসনকে। বিগ ব্যাশ লিগে পার্থ স্কর্চারসের পক্ষে দুর্দান্ত খেলে নজর কেড়েছেন এই পেসার। অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২টি টেস্ট, ১৩টি ওয়ানডে ও ৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন রিচার্ডসন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলেও আছেন ২৪ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার।

আইপিএল নিলাম চলাকালে স্থানীয় সময় মধ্যরাতেও সরাসরিই দেখছিলেন রিচার্ডসন। যখন তার নাম নিলামে তোলার হলো, তার ১০ সেকেন্ডের মধ্যেই প্যাডল তুলেছিল পাঞ্জাব কিংস। কিন্তু ১০ মিনিট সময়টাকেও রিচার্ডসনের কাছে তখন অন্তত কাল মনে হচ্ছিল। কোনো দল না পাওয়া পর্যন্ত তিনি ভুগছিলেন স্নায়ুচাপে। বমি চলে আসছিল বলেও জানান এই পেসার।

রিচার্ডসনের ভাষায়, ‘কী হতে যাচ্ছে সেটা জানতাম না। আমার কেমন বমি বমি পাচ্ছিল। মনে হচ্ছিল যেন ২০ মিনিট ধরে অপেক্ষা করছি, কিন্তু কোনো দল প্যাডল তুলছে না। অথচ ১০ সেকেন্ড পরেই প্যাডল উঠেছিল। কিন্তু আমার মনে হচ্ছিল অনন্তকাল কেটে গিয়েছে। এরপর শুধু আশা করেছি, এটা আরও ওপরে উঠুক।’

রিচার্ডসনের সেই আশা পূরণও হয়েছে। এক ঝটকায় বদলে গিয়েছে তার ব্যাংক ব্যালেন্স। এখন দেখার পালা নিলামে তোলা ঝড় মাঠে কতটা বজায় রাখতে পারেন এই অজি পেসার।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *