ক্যাপ্টেন্সি দিয়েও সাকিবকে টেস্ট খেলানোর চেষ্টা করলাম : পাপন


ক্যাপ্টেন্সি দিয়েও সাকিবকে টেস্ট খেলানোর চেষ্টা করলাম : পাপন

টেস্ট ফরম্যাটে সাকিবের অনীহা প্রকাশ নিয়ে ফের একবার মুখ খুলেছেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। সোমবার মিডিয়ায় প্রকাশ্যে বলেই ফেলেন এক প্রকার জোর করে মুশফিক থেকে ক্যাপ্টেন্সি কেড়ে নিয়ে সাকিবকে দিয়েছিল বিসিবি!

মুশফিককে টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয় সাকিবকে। ছবিঃ বিডিক্রিকটাইম

২০১৭ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্টে বাজে পারফর্ম করেছিল বাংলাদেশ। বাংলাদেশের হেড কোচ হিসেবে সেটিই ছিল চণ্ডিকা হাথুরুসিংহের শেষ সিরিজ। এছাড়াও ওই সফরে যাননি দলের অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার সাকিবও। সব মিলিয়ে সেই সিরিজের ব্যর্থতার কারণ দেখিয়ে মুশফিককে টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরানো হয়।

তবে মুশফিককে সে সময় মুশফিককে টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরানোর কারণটা কিছুটা আন্দাজ করা গেলেও সোমবার সেই কারণটাই প্রকাশ করে ফেলেন বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। মূলত সে সময় টেস্ট খেলতে অনীহা প্রকাশ করেছিলেন সাকিব। তাকে জোর করে খেলাতেই মুশফিককে টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি থেকে সরিয়েছে বিসিবি!

Also Read – নির্বিঘ্নে টানা সিরিজ খেলার জন্য পরিকল্পনা সাজাচ্ছে বিসিবি

“সাকিবকে কী জোর করে খেলানো যেত না? ওকে অনুমতি না দিলে কী করত? হয়ত খেলত। কিন্তু আমরা সেটা চাই না। আমরা চাই যারা এই ফরম্যাটটাকে (টেস্ট) ভালোবাসে সেই খেলুক, জোর করে আমি খেলাতে চাই না। সে তো আরও তিন বছর আগেই টেস্ট খেলতে খেলতে চায় নাই।”

তিনি আরও যোগ করেন, “ও তো এমনিতেই টেস্টের প্রতি ইচ্ছে প্রকাশ করে নাই। ও তো চাচ্ছিল না খেলতে, তখন তো তাকে ক্যাপ্টেন করে দেওয়া হলো। জোর করে তাকে খেলানোর তো চেষ্টা করলাম। আসলে জোর করে খেলানোর কোন মানে নেই। আমার কাছে মনে হয়েছে, আমরা ভবিষ্যতের দিকে আগাতে পারছি না, পেছনের দিকে যাচ্ছি। কাজেই আর কাউকে জোর করব না। আমরা যদি জানি এই কয়টা প্লেয়ার টেস্ট খেলতে চায় না, তখন তো তাদের বিকল্প নিয়ে চিন্তা করতেই হবে আমাদের। হয়ত সময় লাগবে, লাগুক। কিন্তু ভবিষ্যতের জন্য আমরা পাব”

বিগত কয়েক সিরিজে সাকিবের অনুপস্থিতিতে কখনো খেলেছেন মোহাম্মদ মিঠুন আবার কখনো নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে বিসিবি কী আদৌ সাকিবের বিকল্প খুঁজে পাবে সেটিই বড় প্রশ্ন।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *