দলের সিদ্ধান্ত না মানলে আ.লীগে জায়গা হবে না: নানক


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: পৌরসভা নির্বাচনে ‘বিদ্রোহী প্রার্থী’দের প্রতি কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।

তিনি বলেন, নির্বাচন এলে আমাদের মধ্যে কেউ কেউ বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে দাঁড়িয়ে যায়। আওয়ামী লীগ সিদ্ধান্ত নিয়েছে— যারা দলের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করবে, যারা দলের সিদ্ধান্ত মানবে না, যারা শেখ হাসিনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাবে, তারা আর কোনোদিন আওয়ামী লীগে আসতে পারবে না।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) হবিগঞ্জ পৌরসভার বিভিন্ন এলাকায় নৌকার পক্ষে কয়েকটি নির্বাচনি পথসভায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। বিকেল ৩টায় চৌধুরীবাজার নারিকেল হাটায় নির্বাচনি পথসভায় অংশ নেন তিনি। এছাড়া বিভিন্ন নির্বাচনি  প্রচারণা ও পথসভায় তার নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতাদের একটি প্রতিনিধি দল অংশ নেয়।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠেয় পৌর নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ভোট আপনাদের কাছে। এই ভোটের আমানত আপনাদের কাছে। আমানতের খেয়ানত করবেন কি না, তা আপনাদের বিবেকের ব্যাপার। আপনাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে ২৮ ফ্রেব্রুয়ারি। এটা আপনাদের কঠিন সিদ্ধান্ত— এই হবিগঞ্জের উন্নয়ন আপনারা চান নাকি চান না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার হবিগঞ্জে যেসব উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করেছে, তার উদাহরণ তুলে ধরেন জাহাঙ্গীর কবির নানক। এখানকার নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর মনোনয়নের প্রসঙ্গ তুলে ধরে তিনি বলেন, স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় নৌকার প্রার্থীর মনোনয়নের ক্ষেত্রে আমাদের বোর্ডের প্রধান নেত্রী শেখ হাসিনা বললেন, আমি মনোনয়ন দেবো আমার আতাউর রহমান সেলিমকে। কারণ আতাউর রহমান সেলিম শুধু সারাজীবন ত্যাগ-তিতিক্ষা, জেল-জুলুম, অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করেছে। আমি হবিগঞ্জ পৌরবাসীকে আতাউর রহমান সেলিমকে দিলাম।

নানক বলেন, আপনারা সেলিমকে যদি ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন, আমি আপনাদের কথা দিয়ে গেলাম— আমার নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ধরে হলেও এই হবিগঞ্জের উন্নয়ন করা হবে। আপনারা বিপুল ভোটে সেলিমকে বিজয়ী করেন। শেখ হাসিনা প্রার্থী দিয়েছেন, শেখ হাসিনার প্রতি সম্মান দেখান, শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। উন্নয়নে পিছিয়ে থাকা এই হবিগঞ্জ আর মৃত থাকবে না।

স্থানীয় জনগণের উদ্দেশে দলের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা একটি ব্যবসাবান্ধব সরকারের নেতৃত্বে দেন। আজকে ব্যবসা করছেন আপনারা, আপনাদের ব্যবসায়িক নিরাপত্তা দেওয়ার কথা আমাদের নৌকার প্রার্থী তার বক্তব্যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তাই আপনারা আপনাদের পবিত্র ভোট দিয়ে আগামী ২৮ তারিখ নৌকার প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিমকে জয়ী করবেন।

এসব নির্বাচনি পথসভা ও প্রচারণায় আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক  সাখাওয়াত হোসেন সফিক, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের  সদস্য ডা. মুশফিক চৌধুরী, আজিজুস সামাদ আজাদ ডনসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা।

সারাবাংলা/এনআর/টিআর





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *