‘আম্পায়ার্স কল’-এর বিভ্রান্তি থেকে মুক্তি মিলছে ক্রিকেট সমর্থকদের!


‘আম্পায়ার্স কল’-এর বিভ্রান্তি থেকে মুক্তি মিলছে ক্রিকেট সমর্থকদের!

ভবিষ্যতে ক্রিকেট থেকে উঠে যেতে পারে আম্পায়ার্স কল। এমসিসি সভায় এটি উঠিয়ে নিতে আলোচনা করেছে সাঙ্গাকারা, ওয়ার্নদের নিয়ে গঠিত এমসিসি। এমনকি ক্রিকেটে শর্ট বল এবং বলে থুতু ব্যবহারে পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে।

রুটের আউট নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয় ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মাঝে। ছবিঃ টুইটার

বর্তমান সময়ে ক্রিকেট হোক কিংবা ফুটবল- প্রযুক্তির কাছে নিজেদের সাপটে দিতে হয় মাঠের আম্পায়ার কিংবা রেফারিকে। ক্রিকেটে অনেকদিন ধরেই মাথা ব্যথার কারণ হয়ে আসছে ‘আম্পায়ার্স কল’। মূলত এলবিডব্লুর সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছুটা অনিশ্চয়তায় থাকেন বলেই ‘আম্পায়ার্স কল’ সিদ্ধান্ত দিতে বাধ্য থাকেন।

ধরা যাক- মাঠের আম্পায়ার ব্যাটসম্যানকে নট আউট দিয়েছেন।  নিয়ম অনুযায়ী বল ট্র্যাকিংয়ে দেখা গেলো স্ট্যাম্পে বল হিট করার সময় উভয় স্ট্যাম্পের ৫০ ভাগের বেশি হিট করেনি এবং বেলের নিচের অংশে বলের অর্ধেকের বেশি হিট করেনি। তখনই আম্পায়ার্স কলের সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দেওয়া হয় বেশি।

Also Read – অর্জুনকে ঘিরে ‘নেপোটিজম’ বিতর্ক, মুখ খুললেন শচীন

ক্রিকেট থেকে এটি উঠিয়ে নিতে অনেকবারই আলোচনা করেছেন শচীন টেন্ডুলকার, শেন ওয়ার্নের মতো কিংবদন্তীরা। তবে সেটি এতদিন আইসিসির মাথা ব্যথার কারণ না হলেও সামনেই ক্রিকেট থেকে উঠে যেতে পারে এই আম্পায়ার্স কল। ক্রিকেট থেকে এটি সরিয়ে নিতে আইসিসিকে জানাবে এমসিসি কমিটির সদস্যরা। এমসিসি তাঁদের বিবৃতিতে জানায় সমর্থকদের কনফিউশন দূর করতে হয় আউট কিংবা নট আউট- রাখার চিন্তা ভাবনা করছে তারা।

এইতো কয়েকদিন আগেই ভারত-ইংল্যান্ড টেস্টে ‘আম্পায়ার্স কলের’ সিদ্ধান্ত তুমুল আলোচনা হয়েছে। মূলত অক্ষয় প্যাটেলের বলে এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েছিলেন ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট। আম্পায়ার ভারতের আবেদনে সাড়া না দিলে রিভিউ নিতে বাধ্য হন বিরাট কোহলি। রিভিউতে দেখা যায় প্যাটেলের বলটি স্ট্যাম্পের ৫০ ভাগের কম অংশে ছিল। এই নিয়ে আম্পায়ারের সঙ্গে তর্কও করেন কোহলি এবং শাস্ত্রী।

অবশ্য অনেকেই আম্পায়ার্স কলের নিয়মের পরিবর্তনের পক্ষে নয়। তাঁদের ধারণা ক্রিকেট সমর্থকরা এতদিনে এটির সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছেন। তাছাড়া মাঠে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে ভুল থাকতেই পারে।

এদিকে শুধু ‘আম্পায়ার্স কল’-এর নিয়মে নয় পরিবর্তন আসতে পারে বলে লালা ব্যবহারে এবং শর্ট বলের নিয়মে। করোনাভাইরাসের কারণে বোলারদের লালা ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে আইসিসি। এতে বোলাররা লালা ব্যবহার করতে না পারলেও ভিন্ন পথে বল উজ্জ্বল করছেন বোলাররা। তবে এতে বোলারদের জন্যই বেশি সমস্যা হচ্ছে। এমসিসি জানিয়েছে এখনই এটির ব্যবহারে পুরোপুরি নিষেধাজ্ঞা জারি করা যাবে না।

পরিবর্তন আসতে ক্রিকেটে শর্ট বলের নিয়মেও। এমসিসি বলছেন, ক্রিকেটে ব্যাট এবং বলে- সামঞ্জস্য খুবই প্রয়োজন। এসব ইস্যু নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের গণ্যমান্য ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করে আইসিসি ক্রিকেট কমিটিতে পাঠাবে এমসিসি।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *