২৪ শর্তে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অনুমোদন পেল বিএনপি


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে বছরব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য ‘পুলিশি’ অনুমোদন পেয়েছে বিএনপি। তবে অনুষ্ঠানের করার ক্ষেত্রে ২৪ শর্তে জুড়ে দিয়েছে পুলিশ।

রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে সারাবাংলাকে এসব তথ্য জানান বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেসউইং সদস্য শায়রুল কবির খান।

শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে— উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্থান ব্যবহারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমোদন নিতে হবে, স্থান ব্যবহারের অনুমতিপত্রে উল্লিখিত শর্তাবলী যথাযথভাবে পালন করতে হবে, স্বাস্থ্য অধিদফতর ও আইইডিসিআর কর্তৃক নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে পালন করে ‘সমাবেশ’ পরিচালনা করতে হবে, সরকারি নির্দেশ মোতাবেক পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে, মাস্ক পরিধান করে, নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় শরীরের তাপমাত্রা মেপে এবং উত্তমরূপে স্যানিটাইজড হয়ে অনুষ্ঠানস্থালে প্রবেশ করেত হবে, স্বাভাবিক যানচলাচল নিশ্চিতকল্পে রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করা যাবে না, নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় পর্যাপ্ত সংখ্যক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করতে হবে, স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ভেতর এবং বাইরে প্রয়োজনীয় সংখ্যক সিসি ক্যামেরা লাগাতে হবে, নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রতিটি প্রবেশ পথে আর্চওয়ে স্থাপন করতে হবে, নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ‘সমাবেশ’স্থলে আসা প্রতিটি গাড়ি তল্লাশি করতে হবে, সমাবেশস্থলে অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা রাখতে হবে, অনুমোদিত স্থানের বাইরে মাইক ব্যবহার করা যাবে না, আযান-নামাজ ও অন্যান্য ধর্মীয় সংবেদনশীল সময়ে মাইক বন্ধ রাখতে হবে, অনুমোদিত স্থানের বাইরে প্রজেকশন ব্যবহার করা যাবে না, ফুটপথে জনসমাগম করা যাবে না, আইন-শৃঙ্খলাপরিপন্থী, ধর্ম ও রাষ্ট্র এবং জননিরাপত্তাবিরোধী কার্যক্রম পরিচালনা করা যাবে না, উসকানিমূলক কোনো বক্তব্য দেওয়া যাবে না, ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন কোনো বক্তব্য দেওয়া যাবে না, সমাবেশ শুরুর দুই ঘণ্টা আগে লোকজন ‘সমাবেশস্থলে’ আসতে পারবে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ‘সমাবেশের’ যাবতীয় কাজ শেষ করতে হবে, কোনো ধরনের লাঠি-সোটা বহন ও ব্যানার-ফেস্টুনের আড়ালে লাঠি-সোটা ব্যবহার করা যাবে না, মিছিলসহকারে সমাবেশে আসা যাবে না, উল্লেখিত শর্ত যথাযথভাবে পালন না করলে তাৎক্ষণিকভাবে অনুমোদন বাতিল বলে গণ্য হবে, জনস্বার্থে কর্তৃপক্ষ কোনো কারণ ছাড়াই অনুমোদন বাতিল করতে পারবে।

উল্লেখ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনে বছরব্যাপী কর্মসূচি উদ্বোধনের জন্য গত ২০ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনে (ডিএমপি) চিঠি দেয় বিএনপি। চিঠি পাওয়ার আটদিনের মাথায় সোমবার বিকেলে এই অনুমোদন দেয় ডিএমপি। সোমবার বিকেল তিনটায় রাজধানীর হোটেল লেকশো’রে বছরব্যাপী কর্মসূচি উদ্বোধন করবে বিএনপি।

সারাবাংলা/এজেড/পিটিএম





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *