ভারতকে আরও ভালো দল ভেবেছিলাম : শোয়েব আক্তার


ভারতকে আরও ভালো দল ভেবেছিলাম : শোয়েব আক্তার

আহমেদাবাদের ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দিবারাত্রি টেস্ট দুই দিনের শেষ হয়ে গিয়েছিল। টেস্ট ক্রিকেটে এমন উইকেটের সমর্থন করেনি অনেক সাবেক ক্রিকেটার। এবার সেই দলে যোগ দিলেন পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার শোয়েব আক্তার।

পিসিবির চাকরি না পাওয়ায় শোয়েবের 'শাপেবর'

সম্প্রতি সময়ে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় টেস্টে স্পিন বান্ধব উইকেটে খেলতে নেমেছে ভারত। দুই টেস্টেই স্পিনারদের কল্যাণে জয় পায় ভারত। তবে দিবারাত্রি টেস্ট নিয়ে আলোচনা একটু বেশিই হচ্ছে। কেননা এই টেস্ট মাঠে গড়িয়েছে কেবলই দেড় দিন! দ্বিতীয় দিন শেষ হওয়ার আগেই টেস্ট শেষ হয়ে যায়।

Also Read – নিউজিল্যান্ডে তৃতীয় দফায়ও করোনা নেগেটিভ টাইগাররা

এই ধরণের উইকেট টেস্ট ক্রিকেটের জন্য মোটেও উপযুক্ত নয় বলে মত দেন ভন, বয়কটের মতো সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটাররা। এইবার আহমেদাবাদ টেস্টের উইকেট নিয়ে কথা বলেছেন শোয়েব আক্তার। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এই ইস্যু নিয়ে কথা বলেন সাবেক এই ফাস্ট বোলার।

“এই ধরণের উইকেট কী আদৌ টেস্টের জন্য উপযুক্ত? মোটেও না। যেখানে অবিশ্বাস্য টার্ন পায় এবং ম্যাচ দুই দিনের মধ্যে শেষ হয়ে যায়, সেটি মোটেও টেস্ট ক্রিকেটের জন্য আদর্শ উইকেট হতে পারে না। হ্যাঁ, ঘরের মাঠের সুবিধা নেওয়ার ব্যাপারটা বুঝি আমি। তবে আমি মনে করি ওই উইকেট অতিরিক্ত ছিল। এই উইকেটে ভারত যদি ৪০০ করত এবং ইংল্যান্ড যদি ২০০ করত, তাহলে বলা যেত ইংল্যান্ড বাজে ব্যাটিং করেছে। কিন্তু সেখানে ভারত স্বাগতিক হয়েও ১৪৫ এর বেশি করতে পারেনি।”

এই তো কয়েক মাস আগেই অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে বিরাট কোহলিকে ছাড়াই টেস্ট সিরিজ জিতে এসেছে ভারত। শোয়েবের প্রশ্ন অ্যাডিলেড কিংবা মেলবোর্নে কি ভারতের মন মতো উইকেট তৈরি করা হয়েছিল? সেই সাথে তিনি এটিও মনে করেন ঘরের মাঠে ভারতের ভয় পাবার কোন কারণ দেখছেন না তিনি।

“আমি ভেবেছিলাম ভারত এর চাইতেও ভালো দল, বড় দল। এখানে যদি দুই দলকে সমান সুযোগ দিয়ে উইকেট বানানো হয় তাও ভারত জিতবে। ভারতের ভয় পাবার কোন কারণ দেখছি না আমি। তাঁদের এমন উইকেটও বানানোর কোন মানে দেখছি না আমি। অ্যাডিলেড এবং মেলবোর্নে কি ভারতের সুবিধা মতো উইকেট বানানো হয়েছিল? তারা কিভাবে সেখানে সিরিজ জিতল? আপনি সমান সুযোগ মাঠ এবং কন্ডিশনে খেলুন, তাহলে বলতে পারবেন দেখো আমরা ঘরে এবং বাইরে- দুই জায়গায় ভালো খেলতে পারি।”

উল্লেখ্য, চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ২-১ জিতে সিরিজে এগিয়ে রয়েছে ভারত। শেষ টেস্ট ‘ড্র’ কিংবা জিততে পারলেই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠবে ভারত।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *