Amitabh Bachchan shares poem after operation


Published by: Suparna Majumder |    Posted: March 4, 2021 7:53 pm|    Updated: March 4, 2021 7:53 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “দৃষ্টিহীন, তবে দিশাহীন নই আমি”— অস্ত্রোপচারের পরও বিরাম নেই তাঁর। দু’টি চোখকে বিশ্রাম দিতে বলেছেন চিকিৎসকরা। কিন্তু এক জায়গায় থিতু হয়ে তিনি কি বসতে পারেন? অসুস্থ অবস্থাতেই সেলফি আপলোড করলেন অমিতাভ বচ্চন (Amitabh Bachchan)। লিখে ফেললেন গোটা কবিতা।

“মেডিক্যাল কন্ডিশন, সার্জারি, আর বেশি লিখতে পারছি না!” নিজের ব্লগে শুধুমাত্র একথাই জানিয়েছিলেন বলিউডের শাহেনশা। কী হয়েছে তাঁর? সেই সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। তবে চোখের কোনও সমস্যা হয়েছে বলেই অনুমান করছেন অনুরাগীরা। অস্ত্রোপচারের পর বিগ বি’কে সাবধানেই থাকতে বলেছেন চিকিৎসকরা। চোখকে আরাম দিতে বলেছেন। তবে শুয়ে বিশ্রাম নেওয়ার পাত্র তিনি নন। সবসময়ই কিছু না কিছু করতে থাকেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও দেন। সেখানেই ছবি পোস্ট করে হিন্দিতে কবিতাটি লিখেছেন। যেখানে নিজের অসুবিধার কথা জানিয়েছেন। কিন্তু হাল ছাড়ার পাত্র যে তিনি নন সেকথাও বুঝিয়ে দিয়েছেন। যাঁরা তাঁর আরোগ্য কামনা করেছেন, তাঁদের জন্য করজোড়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন অমিতাভ বচ্চন।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলে কৌশানি, বিজেপিতে বনি? জল্পনার মাঝে মুখ খুললেন টলিপাড়ার নায়ক ]

গত বছরের মাঝামাঝিতে ‘বিগ বি’ এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা করোনায় (Corona Virus)  আক্রান্ত হন। অভিষেক বচ্চন, ঐশ্বর্য রাইয়ের পাশাপাশি করোনা পজিটিভ হন ছোট্ট আরাধ্যাও। ঐশ্বর্য এবং আরাধ্যা হোম আইসোলেশনে থাকলেও অমিতাভ বচ্চন এবং অভিষেককে ভরতি হতে হয় হাসপাতালে। বছর আটাত্তরের তারকাকে করোনার (COVID-19) ছোবল থেকে সুস্থ করে তোলা কার্যত কিছুটা চ্যালেঞ্জের ছিল নানাবতী হাসপাতালের চিকিৎসকদের কাছে। সময় লাগলেও করোনাকে হার মানিয়েছিলেন বলিউডের শাহেনশা। ফিরেছিলেন শুটিং ফ্লোরে। এবারও বেশ কষ্টে রয়েছেন বিগ বি। নিজের ব্লগে জানিয়েছেন, প্রায় সারাদিন চোখ বুজে শুয়ে থাকতে হচ্ছে। বেশিক্ষণ তাকাতে পারছেন না। ঠিক করে লিখতে পারছেন না। সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন প্রিয় তারকা, এই প্রার্থনাই করছেন অনুরাগীরা।

[আরও পড়ুন: ‘অচেনা উত্তম’কে কীভাবে চেনাবেন? শুভ মহরতে জানালেন শাশ্বত-ঋতুপর্ণা-দিতিপ্রিয়া]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *