বিশ্বকাপ আয়োজনে পাকিস্তান নয়, ভারতকে অনুসরণ করবে আইসিসি


বিশ্বকাপ আয়োজনে পাকিস্তান নয়, ভারতকে অনুসরণ করবে আইসিসি

আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনে কেমন প্রটোকল রাখা হবে সেটির জন্য বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্টগুলোতে নজর রয়েছে আইসিসির। আইপিএল থেকে ধারণা পাবার অপেক্ষায় রয়েছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী মানু সোহনি।

এই বছরই ভারতে বসতে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর। গত বছর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে সেটি পেছানো হয়েছে। তবে করোনার প্রাদুর্ভাব এখনও কাটেনি। বিশেষ করে ভারতের মতো জনসংখ্যার দেশে ভয়টা একটু বেশিই। করোনার মধ্যেও ক্রিকেটারদের জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে রেখে দ্বিপাক্ষিক কিংবা টুর্নামেন্টগুলো আয়োজন করছে ক্রিকেট বোর্ড।

Also Read – টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠায় ৮ কোটি টাকা পুরষ্কার পাচ্ছে ভারত

তবে সম্প্রতি পিএসএলের কাণ্ড আইসিসির চোখ খুলে দেওয়ার মতোই। পিএসএল চলাকালীন কয়েকদিনের ব্যবধানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার। আর তাতেই বন্ধ করতে হয় টুর্নামেন্টটি। জৈব সুরক্ষার বলয় নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে লাহোর কালান্দার্স সহ বেশ কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি। পিএসএল কিংবা আইপিএল- ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টগুলো ৭-৮ দল থাকলেও আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করতে হবে ১৬ দল নিয়ে।

এই ১৬ দলের ক্রিকেটার হতে সকল কোচিং স্টাফদের রাখতে হবে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে। সম্প্রতি পিএসএলে ঘটে যাওয়া ঘটনায় জৈব সুরক্ষার বলয়ের ব্যবস্থাপনা নিয়ে ভাবছে আইসিসি। অপেক্ষা করছে আইপিএলের জন্য।

“সবার এটা বুঝতে পারা খুব গুরুত্বপূর্ণ যে ঝুঁকি কমানোর ব্যাপারটা সরলরেখায় চলে না। ধরুন, একটা দ্বিপক্ষীয় সিরিজ, দুই দল খেলছে সেখানে। এর বিপরীতে একটা বিশ্বকাপ, যেখানে ১৬টি দেশ ১৬টি ভিন্ন দল থেকে একটা দেশে আসবে। সে ক্ষেত্রে ঝুঁকি অনেক অনেক বেশি, অনেক ভিন্ন। এই জটিল দিকগুলো নিয়েই আমরা সবাই এখন ভাবছি, কী করতে হবে, সে ব্যাপারে প্রতিদিনই আগের দিনের চেয়ে আরেকটু বেশি শিখছি।”

তিনি আরও যোগ করেন, “এই মুহূর্তে বিশ্বজুড়ে টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে কী হচ্ছে, সেটা থেকে শেখা জরুরি। ভারত এই মুহূর্তে যা করছে সেটা থেকে শেখা। বিসিসিআই দারুণ কাজ করেছে! এরপর আইপিএল আছে। এ বছরের শেষ দিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রোটোকল কী হবে, সে ব্যাপারে আইপিএল থেকে আমরা শিখতে পারব।”

আগামী ৯ এপ্রিল পর্দা উঠবে আইপিএলের। ৯ এপ্রিলে টুর্নামেন্ট শুরু হয়ে শেষ হবে ৩০ মে। গত আসর সংযুক্ত আরব আমিরাতে আয়োজন করলেও এবারের আইপিএল ভারতেই আয়োজন করা হবে। আর যেহেতু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও ভারতের মাটিতে তাই আইপিএলের উপর নজর থাকবে আইসিসির।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *