বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামে ৮ দাবি


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নারীর মর্যাদা, সম-অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে ৮ দফা দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম। সোমবার (৮ মার্চ) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে এক বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এসব দাবি জানানো হয়।

তাদের দাবিগুলো হলো— ১৮৬১ সালের ধর্ষণ আইন পরিবর্তন করে যুগপোযোগী করা; কৃষিসহ সকল ক্ষেত্রে ও স্তরে সম-কাজে নারী-পুরুষের সম-মজুরি নিশ্চিত ও গৃহ শ্রমিক সুরক্ষা নীতিমালা বাস্তবায়ন করা; সম্পত্তির উত্তরাধিকারে নারী-পুরুষের সম-অধিকার নিশ্চিত ও ইউনিফর্ম সিভিল কোড চালু এবং সিডও সনদের দু’টি ধারা থেকে আপত্তি তুলে নেওয়া; গৃহস্থালি কাজকে অর্থনৈতিক কাজ হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া ও জিডিপির হিসাবে অন্তর্ভুক্ত করা।

এছাড়াও বেসরকারি বৈষম্য দূর করে সব প্রতিষ্ঠানে ৬ মাস সবেতনে মাতৃত্বকালীন ছুটি কার্যকর করা; নগরে নারীদের জন্য পর্যাপ্ত আধুনিক গণপরিবহণের ব্যবস্থা করা, স্বাস্থ্যসম্মত ও নিরাপদ পাবলিক টয়লেট নির্মাণ করা; বিজ্ঞাপন, নাটক, সিনেমা, ওয়াজ মাহফিলে নারীকে অশ্লীল ও পণ্যরূপে উপস্থাপন বন্ধ করা; মুক্তিযুদ্ধে নারীদের বীরত্বের কথা পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভূক্ত করা এবং অপসংস্কৃতি, অশ্লীলতা, পর্নোগ্রাফি ও মাদকের ছোবল থেকে নর-নারী, ছাত্র-যুব সমাজকে রক্ষা করা, সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলা ও পাঠ্যপুস্তকসহ সর্বত্র সাম্প্রদায়িকীকরণ রোধের দাবি জানিয়েছেন তারা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘নারী দিবস ঘোষণার এতো বছর পরেও আমাদের দেশের নারীরা রাষ্ট্রীয়ভাবেই আইনি বৈষম্যের শিকার হয়ে সমান অধিকার থেকে বঞ্চিত। এখনও সম্পত্তির উত্তরাধিকারে নারীর সমান অধিকার প্রতিষ্ঠা পায়নি। সমকাজে সমমজুরি আইনে থাকলেও, প্রায় সকল অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের নারী শ্রমিকদের ক্ষেত্রে তার বাস্তবায়ন নেই। অন্যদিকে সারাদেশে নারী-শিশু নির্যাতন, ধর্ষণ, হত্যা ভয়াবহভাবে বেড়ে চলেছে। ধর্ষণ-নির্যাতন এমন মাত্রায় এসে পৌঁছেছে যে আমাদের দেশে কোনো নারীর পক্ষে উৎকণ্ঠার বাইরে স্বাভাবিক জীবনযাপন কল্পনা করা সম্ভব হচ্ছে না।’

সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন- সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী শম্পা বসু, ঢাকা নগর সভাপতি মুক্তা বাড়ৈ, কেন্দ্রীয় সদস্য সুস্মিতা মরিয়ম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সংগঠক লাবনী বন্যাসহ অন্যরা।

সারাবাংলা/এসএইচ/এমও





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *