WB Election 2021: FIR against Swarup biswas by BJP Candidate Babul Supriyo


Published by: Suparna Majumder |    Posted: April 9, 2021 11:41 am|    Updated: April 9, 2021 11:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফেডারেশন অব সিনে টেকনিশিয়ানস অ্যান্ড ওয়ার্কার্স অব ইস্টার্ন ইন্ডিয়ার ধিক্কার মিছিলে যোগ না দেওয়ায় টলিউডের শিল্পী ও কলাকুশলীদের পরোক্ষে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল। তার বিরুদ্ধে এবার রিজেন্ট পার্ক থানায় (Regent Park Police Station) অভিযোগ দায়ের করলেন টালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী বাবুল সুপ্রিয় (BJP Candidate Babul Supriyo)। ফেডারেশনের সভাপতি স্বরূপ বিশ্বাস এবং সম্পাদক অপর্ণা ঘটকের বিরুদ্ধে করা হয়েছে মামলাটি। ফেসবুকে এফআইআরের কপি পোস্ট করে বিস্তারিত জানিয়েছেন বাবুল।

ঘটনার সূত্রপাত হয় ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষের (Rudranil Ghosh) একটি বক্তব্যকে কেন্দ্র করে। যেখানে রুদ্রনীল অভিযোগ করেন, টলিউডে মাফিয়া রাজ চলছে। এর বিরুদ্ধেই ৪ এপ্রিল টলিউডকে ‘কালিমালিপ্ত’ করার অভিযোগে একটি ধিক্কার মিছিলের আয়োজন করা হয়েছিল। টলিউডের কিছু শিল্পী, কলাকুশলী মিছিলে অংশগ্রহণ করেছিলেন। তবে কাজের কারণে অনেকেই যেতে পারেননি বলে খবর। তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি হোয়াটসঅ্যাপ (WhatsApp) মেসেজ ছড়িয়ে পড়ে। যাতে মিছিলে যোগ দেওয়া শিল্পী ও কলাকুশলীদের কৃতজ্ঞতা জানিয়ে যাঁরা যোগ দেননি বা দিতে পারেননি তাঁদের উদ্দেশ্যে লেখা হয়েছিল, “অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি, যে সমস্ত স্বনামধন্য কলাকুশলীরা যেমন পরিচালক, চিত্রশিল্পী, ক্যামেরা পার্সন, রূপটান শিল্পী প্রমুখেরা আজকের এই ঐতিহাসিক মিছিলে যোগদান করলেন না, ফেডারেশনের অপমানের বিরোধিতা করলেন না, আগামী দিনে ফেডারেশন তাদের নিয়ে গভীরভাবে চিন্তাভাবনা করবে।” বার্তার নিচে ফেডারেশনের সভাপতি তথা টালিগঞ্জ এলাকার বিদায়ী বিধায়ক অরূপ বিশ্বাসের ভাই স্বরূপ বিশ্বাস এবং সম্পাদক অপর্ণা ঘটকের নাম লেখা হয়। সেই মেসেজের ভিত্তিতেই শিল্পী ও কলাকুশলীদের প্রচ্ছন্ন হুমকি দেওয়ার অভিযোগটি জানিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়।

[আরও পড়ুন: রুদ্রনীল ঘোষের ফ্লেক্স ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ, ইটবৃষ্টিতে রণক্ষেত্র চেতলা]

এর আগে নিজেদের বিরুদ্ধে ওঠা যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন স্বরূপ বিশ্বাস ও অপর্ণা ঘটক। এক সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে ফেডারেশনের সভাপতি জানিয়েছিলেন, সকলেই উদ্যোগটির প্রশংসা করেছিলেন। কেউ কোনও বিরোধিতা করেননি। বিভাজনের মানসিকতা ঠিক নয়। মনে রাখতে হবে, এই লড়াইটা কিন্তু সকলের। অপর্ণা দেবী জানিয়েছিলেন, সংগঠন সমস্ত সদস্যের দায়িত্ব নিয়ে চলছে। সেই সংগঠন এবং সদস্যরা মিথ্যা অভিযোগে অভিযুক্ত। তাই রবিবার দুপুরে নিজের ইচ্ছায় পথে নেমেছিলেন কলাকুশলীরা। যাঁরা আসতে পারেননি, তাঁদের দায় থেকে যায় সংগঠনকে প্রকৃত কারণ জানানোর। সেই কথাই বিবৃতিতে বলা হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: EXCLUSIVE: দিলীপ ঘোষের ‘রগড়ে দেব’ মন্তব্যের মোক্ষম জবাব দিলেন অনির্বাণ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *