দেশে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ ৮৩ জনের মৃত্যু


বাংলাদেশ মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর দেশের ইতিহাসে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ ৮৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এদের মধ্যে পুরুষ ৫৪ ও নারী ২৯ জন। গতকালের চেয়ে আজ ৫ জন বেশি মৃত্যুবরণ করেছেন। গতকাল ৭৮ জন মৃত্যুবরণ করেছিলেন। এখন পর্যন্ত দেশে করোনা মহামারিতে মৃত্যুবরণ করেছেন ৯ হাজার ৮২২ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪২ শতাংশ। গত ৯ এপ্রিল থেকে মৃত্যুর একই হার বিদ্যমান রয়েছে।

আজ স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘন্টায় ৩৪ হাজার ৯৬৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭ হাজার ২০১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। গতকালের চেয়ে আজ ১ হাজার ৩৮২ জন বেশি আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল ২৯ হাজার ৩৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫ হাজার ৮১৯ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছিল।

দেশে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৫৯ শতাংশ। আগের দিন এই হার ছিল ১৯ দশমিক ৮১ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ শনাক্তের হার দশমিক ৭৮ শতাংশ বেশি।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, দেশে এ পর্যন্ত মোট ৫০ লাখ ৩৭ হাজার ৮৩৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬ লাখ ৯১ হাজার ৯৫৭ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট পরীক্ষার ৩৭ লাখ ৫৯ হাজার ৬৩৬টি হয়েছে সরকারি এবং ১২ লাখ ৭৮ হাজার ১৯৭টি হয়েছে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায়। মোট পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৪ শতাংশ। গতকাল পর্যন্ত এই হার ছিল ১৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল এবং বাসায় মিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৫২৩ জন। গতকাল সুস্থ হয়েছিলেন ৪ হাজার ২১২ জন। গতকালের চেয়ে আজ ৩১১ জন বেশি সুস্থ হয়েছেন। দেশে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৮১ হাজার ১১৩ জন।

আজ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ। গতকাল এই হার ছিল ৮৪ দশমিক ২০ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ সুস্থতার হার দশমিক ২২ শতাংশ কম।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৩৬ হাজার জনের। আগের দিন নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল ২৯ হাজার ২৯৮ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৬ হাজার ৭০২টি নমুনা বেশি সংগ্রহ করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় দেশের সরকারি ১৮৪টি ও বেসরকারি ৭১টিসহ ২৫৫টি পরীক্ষাগারে (এন্টিজেন টেস্টসহ) নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৪ হাজার ৯৬৮ জনের। আগের দিন নমুনা পরীক্ষা হয়েছিল ২৯ হাজার ৩৭৬ জনের। গতকালের চেয়ে আজ ৫ হাজার ৫৯২টি নমুনা বেশি পরীক্ষা করা হয়েছে।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, সোমবার (১২ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭ হাজার ৯৯১ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬ লাখ ৩১ হাজার ৪০৮ জন। এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ৪৯ হাজার ২৭৯ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ কোটি ৬৬ লাখ ৩০ হাজার ৩৫২ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৬০ হাজার ৬২০ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ১৯ লাখ ১৮ হাজার ৫৯১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৭৫ হাজার ৮২৯ জনের।

আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৩৫ লাখ ২৫ হাজার ৩৭৯ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ৬৯ হাজার ৯১৪ জন।

আক্রান্ত এবং মৃত্যুতে  তৃতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিল এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি ৩৪ লাখ ৮২ হাজার ৫৪৩ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ২৯৩ জনের।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় ফ্রান্স চতুর্থ, রাশিয়া পঞ্চম, যুক্তরাজ্য ষষ্ঠ, তুরস্ক সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: