শেষদিকের নাটকীয়তায় ব্যাঙ্গালোরের অবিশ্বাস্য জয়


শেষদিকের নাটকীয়তায় ব্যাঙ্গালোরের অবিশ্বাস্য জয়

এ যেন আগের ম্যাচের পুনঃমঞ্চায়ন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে পঞ্চম ম্যাচে হেরে গিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ষষ্ঠ ম্যাচে নিশ্চিত জয় হাতছাড়া করল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।

এ যেন আগের ম্যাচের পুনঃমঞ্চায়ন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে পঞ্চম ম্যাচে হেরে গিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ষষ্ঠ ম্যাচে নিশ্চিত জয় হাতছাড়া করল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।
আইপিএলে ৪১ ইনিংস পর অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন ম্যাক্সওয়েল। ছবি : আইপিএল

বুধবার (১৪ এপ্রিল) ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) হাই ভোল্টেজ ম্যাচে মুখোমুখি হয় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ব্যাঙ্গালোর জড়ো করে ১৪৯ রান।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ৪১ বলের মোকাবেলায় ৫টি চার ও ৩টি ছক্কা হাঁকান তিনি। অজি তারকা আইপিএলে অর্ধশতক পেয়েছেন ৪১ ইনিংস পর। এছাড়া ২৯ বলে ৩৩ রান করেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

Also Read – বাংলাদেশিদের কাছে সাহায্য চাইলেন উইলিয়ামস

হায়দরাবাদের পক্ষে জেসন হোল্ডার তিনটি ও ১৮ রানের খরচায় রশিদ খান দুটি উইকেট শিকার করেন।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুতেই ঋদ্ধিমান সাহাকে হারায় হায়দরাবাদ। তবে প্রতিরোধ গড়ে তোলেন ডেভিড ওয়ার্নার ও মনিশ পান্ডে। ওয়ার্নার মারকুটে ব্যাটিংয়ের প্রচেষ্টা চালালেও ধীর ছিলেন মনিশ। ৭টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৭ বলে ৫৪ রান করে দলীয় ৯৬ রানে সাজঘরে ফেরেন ওয়ার্নার। ম্যাচ তখনও হায়দরাবাদের নিয়ন্ত্রণেই ছিল।

এ যেন আগের ম্যাচের পুনঃমঞ্চায়ন। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে জয়ের দ্বারপ্রান্তে গিয়ে পঞ্চম ম্যাচে হেরে গিয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ষষ্ঠ ম্যাচে নিশ্চিত জয় হাতছাড়া করল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।
ওয়ার্নার আউট হতেই খেই হারায় হায়দরাবাদ। ছবি : আইপিএল

মনিশকে নিয়ে জনি বেয়ারস্টো দেখেশুনেই খেলছিলেন। ১১৫ রানে ১৩ বলে ১২ রান করা বেয়ারস্টো আউট হন। পরের বলে মনিশ বড় শট হাঁকাতে গিয়ে ৩৯ বলে ৩৮ রান করে বিদায় নিলে ম্যাচ চলে যায় ব্যাঙ্গালোরের নিয়ন্ত্রণে। ১৭তম ওভারে শাহবাজ আহমেদ ১ রানের খরচায় ৩ উইকেট শিকার করেন। ১৩০ রানের মধ্যে সাজঘরে ফেরেন মোট ৭ ব্যাটসম্যান। রশিদ খান চেষ্টা চালালেও ৯ বলে ১৭ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

শেষ ওভারে হায়দরাবাদের প্রয়োজন ছিল ১৬ রান। অষ্টম ও নবম উইকেট হারিয়ে সেই ওভারে ৯ রান জড়ো করে দলটি। তাই বরণ করে নিতে হয় ৬ রানের পরাজয়। ব্যাঙ্গালোরের পক্ষে শাহবাজ তিনটি এবং মোহাম্মদ সিরাজ ও হার্শাল পেটেল দুটি করে উইকেট শিকার করেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর 

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর : ১৪৯/৮ (২০ ওভার)
ম্যাক্সওয়েল ৫৯, কোহলি ৩৩
হোল্ডার ৩০/৩, রশিদ ১৮/২

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ : ১৪৩/৯ (২০ ওভার)
ওয়ার্নার ৫৪, মনিশ ৩৮, রশিদ ১৭
শাহবাজ ৭/৩, সিরাজ ২৫/২

ফল : রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ৬ রানে জয়ী।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: