latest

বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা নিয়ে মুখ খুললেন ডি ভিলিয়ার্স


বিশ্বকাপে খেলার সম্ভাবনা নিয়ে মুখ খুললেন ডি ভিলিয়ার্স

বিগত কয়েক বছরে সবচেয়ে বেদনাদায়ক অবসর ছিল কার? ক্রিকেট অঙ্গনে এমন প্রশ্ন ছুঁড়ে দেওয়া হলে বেশিরভাগই হয়ত উত্তর দেবেন- এবি ডি ভিলিয়ার্সের! পেশাদার ক্রিকেটার একসময় অবসর নেবেন- এ তো স্বাভাবিক। কিন্তু ডি ভিলিয়ার্সের অবসর কেউ মেনে নিতে পারছিলেন না।

পিএসএল খেলবেন এবিডি ভিলিয়ার্স!
বাউচারের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন ডি ভিলিয়ার্স। ফাইল ছবি

ফর্মের তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হুট করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলে দেন। ওয়ানডে বিশ্বকাপের মত আসরে অনুপস্থিত ছিলেন। তবে ডি ভিলিয়ার্স অবসর ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন- এমন কথাও শোনা গিয়েছিল। করোনা আর দক্ষিণ আফ্রিকা বোর্ডের নানা অব্যবস্থাপনায় ডি ভিলিয়ার্স এখনও অবসর ভাঙেননি।

অনেকে ব্যাপারটি ভুলে যেতে বসেছিলেন। সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকার প্রধান কোচ মার্ক বাউচার এই ইস্যুতে কথা বলার পর এবার খোদ ডি ভিলিয়ার্সই মুখ খুলেছেন। সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক জানিয়েছেন, আইপিএলের পরই নেবেন ফেরার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত।

Also Read – কলকাতার একাদশে পরিবর্তনের আভাস ম্যাককালামের

তিনি বলেন, ‘আইপিএলের সময় এই বিষয়ে নিয়ে আলোচনা করার কথা বাউচার ও আমার। হ্যাঁ, আমরা বিষয়টি নিয়ে কথা বলছি।’

ডি ভিলিয়ার্সকে প্রত্যাবর্তনের ব্যাপারে বাউচার জিজ্ঞেস করেছেন ২০২০ সালে। বিষয়টি নিশ্চিত করে ডি ভিলিয়ার্স বলেন, ‘গত বছর ও আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল আমি আগ্রহী কিনা। আমি বলেছিলাম- হ্যাঁ, একদম! আইপিএল শেষ হোক; ফর্ম এবং ফিটনেসের দিক থেকে আমি কোথায় আছি, তা দেখতে হবে।’

ডি ভিলিয়ার্স অবশ্য দলে জায়গা জুড়ে থাকতে চান না। প্রোটিয়া দলে তার প্রয়োজন হলে তবেই ফিরবেন, এমন কথাও জানিয়ে রেখেছেন, ‘দলের দিকেও দেখতে হবে। দলে এমন কয়েকজন আছে, যারা বেশ কয়েকদিন ধরে ভালো খেলছে। আমার জন্য যদি কোনো জায়গা না থাকে, তাহলে সেটাই। যদি সবকিছু ঠিকঠাক হয়, আর আমার জায়গা হয়, তাহলে দুর্দান্ত হবে। আইপিএলের শেষের দিকে বাউচারের সঙ্গে আলোচনার জন্য অপেক্ষা করছি।’

২০১৮ সালের মে মাসে হুট করে ডি ভিলিয়ার্স অবসর নিলে বেদনার নীলে ছেয়ে যায় ক্রিকেট বিশ্বের আকাশ। তার মত কিংবদন্তী ক্রিকেটার টানা দুই বছরে দুই ফরম্যাটের দুই বিশ্বকাপের আগে অবসর নিয়েছেন- ব্যাপারটি যেন বিশ্বাস হচ্ছিল না কারো। যদিও গত বছর করোনার কারণে বিশ্বকাপ মাঠে গড়ায়নি। এ বছর ভারতে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপের পর আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হবে স্থগিত হওয়া আসর।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *