সোনারগাঁওয়ে গ্রেফতার জাপা নেতাদের মুক্তি ও হয়রানি বন্ধের দাবি


স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে গ্রেফতার দলের উপজেলা কমিটির সভাপতি ও শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুর রউফ এবং সোনারগাঁও পৌর কমিটির সহসভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর ফারুক আহমেদ তপনের দাবি করেছে জাতীয় পার্টি (জাপা)।

বুধবার (২১ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জাপা চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জি এম কাদের) ও মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এই দাবি জানান। একইসঙ্গে তারা দলের নেতাকর্মীদের হয়রানি বন্ধ করার দাবিও জানিয়েছেন।

যৌথ বিবৃতিতে জাপা চেয়ারম্যান ও মহাসচিব বলেন, গত ৩ এপ্রিল সোনাগাঁওয়ের রয়্যাল রিসোর্টে হামলার ঘটনায় জাতীয় পার্টি বা জাতীয় পার্টির কোনো নেতাকর্মী কোনোভাবেই জড়িত নয়। অথচ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে জাতীয় পার্টির জনপ্রিয় দুই নেতাকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া আরও অন্তত ৩৫ নেতাকর্মীকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে হয়রানি করা হচ্ছে।

জি এম কাদের ও জিয়াউদ্দিন আহমেদ বিবৃতিতে আরও বলেন, পবিত্র রমজান মাস ও মহামারি করোনার এই সংকটকালে জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা ঘরে থাকতে পারছে না। প্রতিরাতে পুলিশ জাতীয় পার্টি নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হানা দিচ্ছে। এতে ওইসব পরিবারে মারাত্মক ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে।

নিরপরাধ এবং ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়— এমন কোনো ব্যক্তিকে যেন অযথা গ্রেফতার বা হয়রানির শিকার করা না হয়, সেজন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছেন যৌথ বিবৃতিতে জাতীয় পার্টির শীর্ষ দুই নেতা।

সারাবাংলা/এএইচএইচ/টিআর





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *