দলীয়ভাবে সারাদেশে ত্রাণ তৎপরতা বৃদ্ধির নির্দেশ শেখ হাসিনার


নৃপেন রায়, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) চলমান পরিস্থিতিতে সারাদেশে জেলা-উপজেলায় দলীয়ভাবে দরিদ্র, অসহায় ও দুঃস্থ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা জোরালো করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির পাশাপাশি পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে সরকারি সহায়তার পাশাপাশি দলীয়ভাবে ত্রাণ তৎপরতা জোরালো করার নির্দেশ দেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) আওয়ামী লীগ সভাপতির এই নির্দেশনা জেলা ও উপজেলা নেতাদের মাঝে টেলিফোন ও মুঠোফোনে এসএমএস’র মাধ্যমে সারাদেশের দলীয় নেতাদের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের পরামর্শে দফতর সেল দলীয় সভাপতির এ নির্দেশেনা কার্যকর করে।

এবিষয়ে আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া সারাবাংলাকে বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের চলমান পরিস্থিতিতে আমাদের দলের মাননীয় নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে দলীয় নেতাদের ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা আজ আনুষ্ঠানিকভাবে সে বার্তা পৌঁছে দিয়েছি।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান বলেন, আমরা সারাদেশে জেলা-উপজেলা নেতাদের মাননীয় নেত্রীর নির্দেশনা পৌঁছে দিয়েছি। চলমান পরিস্থিতিতে তৃণমূলে ত্রাণ তৎপরতা জোরদার করার নির্দেশনা দিয়েছি। একইসঙ্গে দলীয় নেতাদের ত্রাণ তৎপরতার তথ্য ও ছবিগুলো দলের এএলবিডি ওয়েব টিমের অন্তর্গত গ্রাসরুটডটএএলবিডি মেইলে পাঠানোর নির্দেশনা দিয়েছি।

তবে দলীয়ভাবে ত্রাণ সহায়তা জোরদার করার নির্দেশনার আগে ইতোমধ্যেই সরকারের পক্ষ থেকে করোনাভাইরাসের কারণে চলমান লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্থ দরিদ্র, দুঃস্থ, ভাসমান এবং অসচ্ছল মানুষকে সহায়তার লক্ষ্যে জেলা প্রশাসকদের ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া করোনা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তারও ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী। এতে চলমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত নিম্নআয়ের প্রায় ৩৫ লাখ পরিবার এবং অতিসম্প্রতি ঘটে যাওয়া প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ প্রায় ১ লাখ কৃষকসহ ৩৬ লাখ পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হবে।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের পরিস্থিতি মোকাবিলায় ইতোমধ্যে সরকার চলমান বিধিনিষেধ (লকডাউন) আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। গত সোমবার (১২ এপ্রিল) সকল পর্যায়ের প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন চলাচলে বিধিনিষেধ এনে প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

সারাবাংলা/এনআর/এসএসএ





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *