latest

Abhijeet Bhattacharya uploaded a song by slamming Bengal COVID-19 situation


Published by: Suparna Majumder |    Posted: April 24, 2021 4:01 pm|    Updated: April 24, 2021 4:01 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একে করোনার (Corona Virus) দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা, তার উপরে বাংলায় এখন ভোট বড় বালাই। এমন পরিস্থিতে কটাক্ষ করেই গান বেঁধেছেন গায়ক অভিজিৎ ভট্টাচার্য (Abhijeet Bhattacharya)। সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন গানের ভিডিও।

২০০৩ সালে মুক্তি পেয়েছিল শাহরুখ খান (Shahrukh Khan), রানি মুখোপাধ্যায় (Rani Mukerji) অভিনীত ‘চলতে চলতে’। ছবিতে আদেশ শ্রীবাস্তবের সুরে ‘শুনো না শুনো না’ গানটি গেয়েছিলেন অভিজিৎ এবং অলকা ইয়াগনিক। সেই গানের সুরেই ভোটের আবহে বাংলার করোনা (COVID-19) পরিস্থিতিকে বিঁধেছেন গায়ক। গানের কথা পালটে দিয়ে বাংলায় লেখা হয়েছে – “অক্সিজেন নেই / মেডিসিনও নেই / হসপিটালে কোনও বেড নেই / নেতারা ব্যস্ত প্রচারে / ওঁদের পয়সা নষ্ট কোরো না / ভোট দেওয়ার আগে মোরো (মানে মরে যেও না) না / ভোট দেওয়ার পরে মরো না।” গানের শেষে আবার ভিডিওর উপর লেখা হয়েছে ‘কী যে হবে বাংলার!’

[আরও পড়ুন: আইসোলেশনে মা শুভশ্রী, বাবা রাজের ‘অত্যাচারে’ জর্জরিত যুবান, দেখুন ভিডিও]

নিজের এই ভিডিওর ক্যাপশনে অভিজিৎ লিখেছেন, “করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে আমাদের সংগীত জগতের অসামান্য রত্ন শ্রবণজিকে হারালাম। আক্ষরিক অর্থেই একটি যুগের অবসান…এই যুদ্ধে বাংলার ভবিষ্যৎ কী হবে?”

উল্লেখ্য, চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়ে বলিউডের ৮১ বছরের চরিত্রাভিনেতা কিশোর নন্দলস্করের (Kishore Nandlaskar)। বৃহস্পতিবার রাতে প্রয়াত হন বলিউডে বিখ্যাত নদিম-শ্রবণ জুটির শ্রবণ রাঠোরের (Shravan Rathod)। কোভিড পজিটিভ ছিলেন তিনিও। শনিবার করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হন অভিনেতা-পরিচালক তথা প্রখ্যাত নাট্যব্যক্তিত্ব ললিত বহেল (Lalit Behl)। ‘তিতলি’, ‘মুক্তি ভবন’-এর মতো সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। আমাজন প্রাইম ভিডিওর ‘মেড ইন হেভেন’ সিরিজেও ছিলেন।

[আরও পড়ুন: বিপদের সময় অক্সিজেন ও বেডের খবর কোথায় পাবেন, হদিশ দিলেন পরমব্রত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *