বাংলাদেশের দুঃস্বপ্নের মত দিন, রান পাহাড়ে শ্রীলঙ্কা


বাংলাদেশের দুঃস্বপ্নের মত দিন, রান পাহাড়ে শ্রীলঙ্কা

ক্যান্ডিতে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে ভুলে যাওয়ার মত একটি দিন পার করল বাংলাদেশ। বাংলাদেশের বিশাল লক্ষ্যের বিপরীতে লঙ্কানরাও দাঁড় করাচ্ছে রানের পাহাড়। চতুর্থ দিনে একটি উইকেটেরও পতন ঘটাতে পারেনি টাইগাররা। 

বাংলাদেশের দুঃস্বপ্নের মত দিন, রান পাহাড়ে শ্রীলঙ্কা
বাংলাদেশের বোলারদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিচ্ছেন করুনারত্নে-ধনঞ্জয়া।

৩১২ রানে রানে পিছিয়ে থাকা শ্রীলঙ্কা ৩ উইকেটে ২২৯ রান নিয়ে খেলতে নেমে প্রতিটি সেশনেই ভুগিয়েছে বাংলাদেশকে। মিরাজ-তাইজুল-তাসকিনরা ঘেমে একাকার হলেও উইকেট হারায়নি শ্রীলঙ্কা। শুধু তা-ই নয়, বাংলাদেশের ইনিংস ঘোষণা নিয়েও বিলাসিতার প্রশ্ন তুলতে বাধ্য করেছে। বাংলাদেশ রানের চূড়া দাঁড় করিয়ে ইনিংস ঘোষণা করা সত্ত্বেও শ্রীলঙ্কা এখন লিডের পথে।

দিমুথ করুনারত্নের দল চতুর্থ দিন শেষে জড়ো করেছে ৫১২ রান। শেষ দিন হাতে রেখে টাইগারদের চেয়ে মাত্র ২৯ রানে পিছিয়ে আছে তারা। ১৯০ রানে তৃতীয় উইকেটের পতনের পর চতুর্থ উইকেটে ৩২২ রানের অবিচ্ছিন্ন পার্টনারশিপ গড়েছেন করুনারত্নে ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। করুনারত্নে তার অধিনায়কোচিত ইনিংসে পেয়েছেন ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির দেখা।

Also Read – আইপিএলের পিচকে ‘আবর্জনা’ বললেন স্টোকস

আগের দিন ৮৫ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়া করুনারত্নে ৪১৩ বলের মোকাবেলায় ২৩৪ রান করে অপরাজিত রয়েছেন। তার ইনিংসে আছে ২৫টি চার। তিন অঙ্কের রানের দেখা পেয়েছেন ধনঞ্জয়াও। ২৭৮ বলের মোকাবেলায় ২০টি চারের সাহায্যে ১৫৪ রান করে অপরাজিত আছেন তিনি।

বাংলাদেশের বোলাররা এখন অবধি বল করেছেন ১৪৯ ওভার। রানের গতি বাংলাদেশের ইনিংসের চেয়ে স্পষ্টতই বেশি। শেষ সেশনে আলোক স্বল্পতার কারণে ১৫ ওভারের মত কম খেলা হয়েছে। মিরাজ ৫২ ও তাইজুল ৩৯ ওভার বল করেছেন। রান খরচের দিক থেকে মিতব্যয়ী ছিলেন মিরাজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (চতুর্থ দিন শেষে)

টস : বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস : ৫৪১/৭ (১৭৩ ওভার, ইনিংস ঘোষণা)
শান্ত ১৬৩, মুমিনুল ১২৭, তামিম ৯০, মুশফিক ৬৮*, লিটন ৫০;
বিশ্ব ৯৬/২, কুমারা ১৩০/১

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস : ৫১২/৩ (১৪৯ ওভার)
করুনারত্নে ২৩৪*, ধনঞ্জয়া ১৫৪*, থিরিমান্নে ৫৮, ম্যাথিউস ২৫, ফার্নান্দো ২০
তাসকিন ৯১/১, মিরাজ ১২৩/১ তাইজুল ১৩৬/১

শ্রীলঙ্কা ২৯ রানে পিছিয়ে।



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *