latest

আইপিএলের বায়ো-বাবল নিয়ে তীব্র সমলোচনা জাম্পার


আইপিএলের বায়ো-বাবল নিয়ে তীব্র সমলোচনা জাম্পার

করোনাভীতি নিয়ে আইপিএল ছেড়েছেন অস্ট্রেলিয়া ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর লেগ স্পিনার অ্যাডাম জাম্পা। আইপিএল ছাড়ার পরই টুর্নামেন্টটির বায়ো-বাবল নিয়ে তীব্র সমলোচনা করেছেন এই স্পিনার।

ভারতে তখনও করোনাভাইরাস একদম শেষ হয়ে যায়নি তবুও সেটিকে উপেক্ষা করতে বর্তমান যুগের সবচেয়ে জনপ্রিয় টি-টোয়েন্টি লিগ, আইপিএল খেলতে ভারতে পাড়ি জমান ক্রিকেটাররা। দিন পেরোতেই বাড়তে থাকে করোনা সংক্রমণ। বিগত কয়েক দিনে রেকর্ডসংখ্যক করোনা আক্রান্ত শনাক্ত করা হয়। আর এতেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন আইপিএলে অংশগ্রহণ করা ক্রিকেটাররা।

Also Read – দুঃস্বপ্নের মত পারফরম্যান্সের পরও একাদশে থাকছেন সাইফ

ভারতে করোনা সংক্রমণ বাড়াতে ক্রিকেটারদের জৈব সুরক্ষা বলয়েও জোর দেয় আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। তবে আইপিএল ছাড়ার পর টুর্নামেন্টটির বায়ো-বাবল নিয়ে প্রশ্ন তোলেন জাম্পা। অস্ট্রেলিয়ার দৈনিক সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, তাঁর দেখা সবচেয়ে বাজে বায়ো-বাবল এটি।

“আমরা বেশ কিছু বায়ো-বাবলে থেকেছি। তাই বলতে কোনও দ্বিধা নেই, আমার দেখা সবচেয়ে দুর্বল বায়ো-বাবল এটি। ভারতে আসার আগে আমাদের স্বচ্ছতার বিষয় মাথায় রাখতে বলা হয়। সব সময়ই বলা হত, সতর্ক থাকতে। ভারত বলেই বোধহয় এমন বলা হতো।”

করোনার কারণে গত বছরের আইপিএল ক্রিকেটার এবং কোচিং স্টাফসহ দলের বাকি সদস্যদের বায়ো-বাবলে রেখে আয়োজন করা হয়েছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতে। বেশ সফলভাবেই টুর্নামেন্টটি আয়োজন করা হয় সেখানে। আর তাই জাম্পা মনে করেন এবারের আইপিএলও আরব আমিরাতেই আয়োজন করার প্রয়োজন ছিল।

“ছয় মাস আগে আরব আমিরারে যে বায়ো-বাবলে ছিলাম, সেখানে কখনো আশঙ্কা কাজ করেনি। ওটা অনেক বেশি নিরাপদ ছিল। ব্যক্তিগত ভাবে আমার মনে হয়, এই বছরও আইপিএলে ওখানেই হতে পারত। কিন্তু এর সঙ্গে তো অনেক রাজনৈতিক ব্যাপার জড়িয়ে আছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও হবে এখানে। পরবর্তী আলোচনার বিষয় হয়ে উঠবে ওটাই। যদিও ৬ মাস এখনো অনেক সময় বাকি রয়েছে।”



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: