‘বিএনপির নেতারা পূর্ণিমার ঝলঝল রাতেও অমাবস্যার অন্ধকার দেখে’


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: সরকারের সব কিছুতে দোষত্রুটি খোঁজে বের করা বিএনপির মজ্জাগত স্বভাবে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার (৪ মে) বিকেলে তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেন।

গণতন্ত্র নিয়ে কথা বলা বিএনপির মুখে শোভা পায় না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ক্ষমতায় থাকতে তারা ১৫ ফেব্রুয়ারির ভোটারবিহীন নির্বাচনের কলঙ্কিত অধ্যায় এদেশে সৃষ্টি করেছে। বিএনপি নেতারা পূর্ণিমার আলো ঝলঝল রাতেও অমাবস্যার অন্ধকার দেখতে পায়’।

নির্বাচন ব্যবস্থাকে দলীয়করণ করার রেকর্ডে বিএনপি চ্যাম্পিয়ন উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তারা এক কোটি সোয়া লাখ ভুয়া ভোটার দিয়ে আজিজ মার্কা প্রহসনের নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিয়েছিল, যার কারণে দেশে এক এগারোর মতো অবস্থা তৈরি হয়’।

গণমাধ্যম সরকার নিজের মতো করে নিয়েছে— বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘গণমাধ্যমের ওপর সরকারের যদি নিয়ন্ত্রণই থাকে তাহলে প্রতিদিন তারা সরকারের বিরুদ্ধে বিশোদগার আর মিথ্যাচার করে কিভাবে’? আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনে করেন, আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ বিএনপি এখনও টিকে আছে স্বাধীন গণমাধ্যম আছে বলেই।

তার ব্রিফিংয়ে মহামারিতে সরকার দিনরাত করোনাপীড়িত মানুষের চিকিৎসা, সংক্রমণ রোধ এবং অসহায় মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

অসহায়, কর্মহীন, খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের সাড়ে ছত্রিশ লাখ পরিবারকে নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বা দলীয় নেতাকর্মীদের আত্মীয়স্বজন দেখে নয়, বরং নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া পরিবারের তালিকা করে এবং যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে এসব সাহায্য দেওয়া হচ্ছে’।

নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা এবার যেন কোনোভাবেই বেহাতে না যায় সে ব্যাপারেও ইতিমধ্যে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের। তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেন, নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা বিতরণে কেউ কোনো অপকর্ম ও অনিয়ম করলে তাকে কঠোর শাস্তি পেতে হবে।

সরকারের কোনো উদ্যোগই বিএনপির চোখে পড়ে না বলে অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। ‘এই সংকটকালে জনগণের জীবন ও জীবিকার মাঝে ভারসাম্য তৈরিতে সরকারের উদ্যোগের প্রশংসা না করে বিএনপি তোতা পাখির মতো শেখানো বুলি অবিরাম আওড়ে যাচ্ছে’ বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

সারাবাংলা/এনআর/আইই





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: