‘একাত্তরের পুরনো শকুনেরা পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়’


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি ‘পেছনের দরজা’ দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার ষড়যন্ত্র করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আব্দুর রহমান।

তিনি বলেন, একাত্তরের সেই পুরনো শকুনেরা পেছন দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়। তাদের সেই অভিলাষ চরিতার্থ হবে না। কারণ শেখ হাসিনার মানবতার স্রোতের কাছে ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টিকারীদের ষড়যন্ত্র খড়কুটোর মতো ভেসে যেতে বাধ্য হবে।

মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে খামারবাড়ি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মাঠ প্রাঙ্গণে কৃষক লীগ আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ঈদ উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনার ডাকে সংগঠনের কর্মীরা পিছুটান না রেখেই সামনের দিকে এগিয়ে যায় মন্তব্য করে আব্দুর রহমান বলেন, যারা আজ ভয় দেখায় যে ধর্মীয় উন্মাদনা দিয়ে শেখ হাসিনার সরকারকে উৎখাত করবে, যারা ভয় দেখায় যে বিদেশ থেকে পাওয়া অর্থ দিয়ে ধর্মীয় উন্মাদনা তৈরি করে নতুন করে বদরের যুদ্ধ করতে চায়, তারা ভুল ভাবছে। ওরা জানে না— শেখ হাসিনার ডাকে তার সংগঠনের নেতাকর্মীরা জীবন দিতে পিছুপা হয় না। সেই সংগঠনে পেছন দিয়ে কেউ কোনো ছুরিকাঘাত করতে পারবে না।

‘একাত্তরের পুরনো শকুনেরা পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়’

তিনি আরও বলেন, এই শক্তি মাথাচারা দিয়ে উঠতে পারবে না। ওরা আজ ক্ষমতার উন্মাদনায় মেতে উঠেছে। ওরা আজ শাপলার চত্বরে জড়ো হওয়ার ডাক দেয়। ওরা আজ এই সরকার উৎখাত করতে চায়। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকি দেয়। ওদের মূলত লক্ষ্য হলো রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করা। কিন্তু তারা পারবে না।

আব্দুর রহমান আরও বলেন, যেখানে শেখ হাসিনা এই দেশের ১৮ কোটি মানুষকে বাঁচানোর জন্য প্রাণপণ লড়াই করে যাচ্ছেন, যেখানে মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়ার জন্য তার নির্ঘুম রাত কাটে, করোনার ভ্যাকসিনের চিন্তায় যখন তিনি ঘুমাতে পারেন না, তখন একাত্তরের সেই পুরনো শকুনেরা পেছন দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়।

তাদের অভিলাষ চরিতার্থ হবে না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, শেখ হাসিনার কর্মীরা মানুষের কাছে যাবে খাবার নিয়ে, অর্থ সহায়তা নিয়ে। শেখ হাসিনার এই মানবিকতার স্রোতের কাছে ওদের ষড়যন্ত্র খড়কুটোর মতো ভেসে যেতে বাধ্য। ওদের ষড়যন্ত্র ভেসে যাবেই।

আব্দুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একদিকে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার অবিরাম লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। অন্যদিকে মানুষ যেন না খেয়ে কষ্ট না পায়, সেজন্য নগদ অর্থ সহায়তা, খাদ্যসহ বিভিন্ন সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। যে শেখ হাসিনার জন্য বাংলাদেশের কোটি কোটি ধর্মপ্রাণ সহজ-সরল মানুষের দোয়া-আশীর্বাদ আছে, সেই শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ হবে না। কোনো ষড়যন্ত্রই এই মাটিতে ঠাঁই পাবে না।

কৃষকের হৃদয় জয় করার জন্য কৃষক লীগের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়ে বলেন, কৃষকের হৃদয় জয় করার মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের হাতকে শক্তিশালী করতে হব, যেন এই দেশ সামনের অগ্রযাত্রায় এগিয়ে যায়।

কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষক লীগের সহসভাপতি শেখ মো. জাহাঙ্গীর আলম, হোসনে আরা বেগম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটু, অ্যাডভোকেট শামিমা শাহরিয়ার এমপিসহ অন্যরা। কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি সঞ্চালনা করেন।

সারাবাংলা/এনআর/টিআর





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: