‘স্বাধীনতার ঘোষণা দেওয়ায় আ.লীগ জিয়াকে সহ্য করতে পারে না’


স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দেওয়ায় বর্তমান সরকার তথা আওয়ামী লীগ জিয়াউর রহমানকে সহ্য করতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

শুক্রবার (৪ জুন) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়াউর রহমানের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

মির্জা আব্বাস বলেন, ‘জিয়াউর রহমান কখনও ভাবেননি তাকে স্বাধীনতার ঘোষণা দিতে হবে। কিন্তু ভাগ্যের কি পরিহাস রাজনৈতিক কর্মীরা যখন দেশ ছেড়ে পালালেন তখন জিয়াউর রহমান বাধ্য হলেন ঘোষণা দিতে। রাজনৈতিক কোনো নেতাকর্মীরা স্বাধীনতার ঘোষণা দেননি। তারা পালিয়ে গিয়েছেন ভয়ে। কিন্তু জিয়াউর রহমান দেশের জন্য স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন। তাই স্বাধীনতার ঘোষণা দেওয়ায় আওয়ামী লীগ তাকে সহ্য করতে পারছে না। যেখানে সারা বাংলাদেশের মানুষ তাকে গ্রহন করে নিচ্ছে, কিন্তু আওয়ামী লীগ গ্রহণ করতে পারছে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইতিহাস বিকৃত করেও আওয়ামী লীগ লাভ করতে পারেনি। পাঠ্যপুস্তক থেকে জিয়াউর রহমানের নাম মুছে ফেলা হয়েছে। পরীক্ষায় খাতায় প্রশ্ন আসছে বাংলাদেশে স্বাধীনতার ঘোষণা কে দিয়েছেন? কিন্তু শিক্ষার্থীরা এখন প্রশ্নের উত্তর দেয় না। একজন জিয়াউর রহমান যে দায়িত্ব পালন করেছেন তা অতুলনীয়। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান একজন রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে দেশ ও জাতির প্রতি তিনি তার দায়িত্ব পালন করেছেন।’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (বীর বিক্রম) বলেন, ‘আজকে দেশে লুটপাটের মহোৎসব চলছে। হেফাজত ইসলাম পুলিশের বেষ্টনী থেকে তার নেতাকে ছিনিয়ে আনতে পারে আমরা কেন পারব না। আজকে কেন আমরা ছাত্র নির্বাচনে প্রার্থী দিতে পারি না সেটা ভাবতে হবে। সামনের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিতে হবে ছাত্রদের। ১৯৭১ সালে আমরা বিধংসী ছাত্রদের দেখেছি, তাদের মতো সাহস হতে হবে।’

আলোচনা সভায় বাংলাদেশ জাতীয় দলের চেয়ারম্যান সৈয়দ এহসানুল হুদার সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মো রহমাতুল্লাহ, রাজিব হাসানসহ অন্যরা।

সারাবাংলা/এসজে/এমও





Source link