Artist Pradyut Mukherjee plants trees ahead of World Environment Day ।Sangbad Pratidin


সুলয়া সিংহ: পুরনো, অব্যবহৃত জিনসের মধ্যে গাছ লাগানোর ট্রেন্ড নতুন নয়। আধুনিক গৃহসজ্জায় এ ধারা বেশ প্রচলিত। কিন্তু ব্যবহার না হওয়া তবলায় গাছ লাগাতে দেখেছেন কখনও? অবাক হচ্ছেন? ভ্রূ কুঁচকে ভাবছেন এরকম কোনওদিন দেখেছেন কিনা? বিশ্ব পরিবেশ দিবসের আগে ঠিক এমনই ব্যতিক্রমী কাজ করে সকলকে অবাক করে দিলেন শিল্পী পণ্ডিত প্রদ্যুৎ মুখোপাধ্যায় (Pradyut Mukherjee)।

কংক্রিটের ভিড়ে হারিয়ে যাচ্ছে সবুজ। তবে শিল্পী পণ্ডিত প্রদ্যুৎ মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে ঢুকলে সেকথা আপনি ভুলতে বাধ্য। কারণ, শিল্পীর বাড়ির ছাদ হোক কিংবা বসার ঘর সর্বত্র সবুজে ভরা। এদিক ওদিকে নানা রকমের বাহারি গাছের ভিড়। বিশ্ব পরিবেশ দিবসে গাছ নিয়েই চমক দিতে চেয়েছিলেন শিল্পী। তারই মাঝে তাঁর পরিচিত সুদীপ্ত চন্দ নতুন এক পরিকল্পনার কথা বলেন। অব্যবহার্য পুরনো তবলাগুলিতে কাজে লাগানোর কথা বলেন তিনি। ব্যস! তাতেই কেল্লাফতে। স্থির করে ফেলেন ওই তবলার ভিতরেই গাছ লাগাবেন। যেমন ভাবনা তেমন কাজ। টবের পরিবর্তে তবলাতেই গাছ লাগাতে শুরু করেন শিল্পী।

[আরও পড়ুন: সূর্যকে টেক্কা দিচ্ছে চিনের ‘কৃত্রিম সূর্য’! সৌরকেন্দ্রের চেয়েও বেশি উত্তাপে বিস্মিত বিজ্ঞানীরা]

তিনি জানান,”এমন অনেক তবলা রয়েছে যেগুলো এখন আর ব্যবহার করি না। সেগুলো ঘরে পড়েই ছিল। মনে হল এভাবে যদি কাজে লাগে ভাল হয়। এসব তবলার সঙ্গে অনেক স্মৃতি রয়েছে। সেগুলো চোখের সামনেও থাকছে। আবার ঘরের শোভাও বাড়াচ্ছে। পরিবেশের কাজেও লাগছে।এই ভাবনার নেপথ্যে রয়েছেন সুদীপ্ত চন্দ।ওঁর বলা ভাবনাটা আমার খুবই ভাল লেগে যায়। তাই তো ঘরের অব্যবহৃত তবলাগুলোকে বানিয়ে ফেললাম গ্রিন তবলা। টবের জায়গায় তবলা ব্যবহার করেছি।” বাদ্যযন্ত্রের মধ্যে গাছ শিল্পীর বাড়ির লুকও যেন বদলে দিয়েছে। বিশ্ব পরিবেশ দিবসেই শিল্পীর জন্মদিন। এমন বিশেষ দিনে ব্যতিক্রম কাজ করতে পারায় অত্যন্ত খুশি তিনি।

[আরও পড়ুন: আগামী সপ্তাহেই বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ, ভারত থেকে কি দেখা যাবে?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে





Source link