শুধু মিছিল-সমাবেশ নয়, জনসচেতনতা সৃষ্টিও দায়িত্ব: নাছিম


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শুধু মিছিল-সমাবেশ নয়, জনগণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করা রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের বড় দায়িত্ব বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম।

শনিবার (৫ জুন) সকালে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে হাইকোর্টের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘নির্মল পরিবেশ রক্ষায় শুধু গাছ লাগানো নয়, আমাদের কল-কারখানা যানবাহন থেকে যে কালো ধোঁয়া সৃষ্টি হয় তাও রোধ করতে হবে। নদীর নাব্যতা খাল-বিল রক্ষা করতে হবে। তাহলেই আমাদের পরিবেশের ভারসাম্য ফিরে আসবে। দেশের পরিবেশ রক্ষায় দেশের সর্বস্তরের মানুষকে সচেতন করে তুলতে হবে।’

বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ‘বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুই প্রথম সবুজ বিপ্লবের ডাক দিয়েছেন। শুধু খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা নয়, দেশকে সবুজায়ন, বনায়নের মধ্য দিয়ে সুন্দরভাবে গড়ে তুলতে ডাক দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। ১৯৮১ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন দেশে ফিরে আসেন তখন শত প্রতিকূলতার মধ্যেও তিনি দেশের ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য সবুজায়নের প্রতি গুরুত্ব দিয়েছিলেন। শেখ হাসিনা শুধু দেশের মানুষ, গণতন্ত্রের জন্য লড়াই সংগ্রাম করেননি, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা, বনায়ন, সবুজ প্রকৃতি গড়ে তোলার ক্ষেত্রেও লড়াই-সংগ্রাম চালিয়ে গেছেন। বাংলাদেশের মানুষ স্বাস্থ্যসম্মত সুন্দর পরিবেশে বেঁচে থাকুক সেটাই শেখ হাসিনা চেয়েছেন। বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ করার জন্য কৃষককে দেশের মানুষকে গাছ লাগাতে উদ্বুদ্ধ করতেন এবং নিজেও গাছ লাগাতেন। শেখ হাসিনা সবসময় আওয়ামী লীগ, সহযোগী সংগঠন সহ দেশের সকল জনগণকে বিভিন্নভাবে সবুজায়নের জন্য পরামর্শ প্রদান করে থাকেন‌।’

তিনি বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কয়েক কোটি গাছ লাগিয়েছেন।’ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ গত বছর প্রায় পাঁচ লাখ গাছ লাগিয়েছে এবারও তার দ্বিগুণ গাছ লাগাবে বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

আওয়ামী লীগ দেশ ও মানুষের জন্য রাজনীতি করে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সবসময় দেশ ও দেশের জনগণের জন্য রাজনীতি করে। আমরা ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করি না। আমরা চাই বাংলাদেশের প্রতিটা মানুষ সুন্দরভাবে ভারসাম্য পরিবেশে বেঁচে থাকুক। সে জন্য আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী নিবেদিতপ্রাণ হয়ে দেশের মানুষের জন্য, দেশের জন্য রাজনীতি করে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মানুষকে সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য করোনার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের সঠিক দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ দিয়েছেন। বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের মানুষ এই মহামারির মধ্যেও অনেক ভালো আছে।’

নাছিম আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের মানুষ আবার সুন্দর একটি পরিবেশ ফিরে পাবে এবং আমাদের প্রিয় মাতৃভূমিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাব। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ নির্মাণে আওয়ামী লীগ দেশের জনগণের কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সেই প্রতিশ্রুতি অবশ্যই আমরা বাস্তবায়ন করব ইনশাল্লাহ। জন্মলগ্ন থেকেই আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ মানবকল্যাণ, দেশের কল্যাণের কাজ গুরুত্ব দিয়ে করে যাচ্ছে। করোনার মধ্যে সারা বিশ্ব বিপর্যস্ত হলেও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবকল্যাণে কাজ করে গেছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীরা।’

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক এ এস এম মাকসুদ কামাল। এ ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু, সহ- সভাপতি ম. আব্দুর রাজ্জাক, কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোবাশ্বের চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক নাফিউল করিম নাফা, দফতর সম্পাদক আজিজুল হক আজিজ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম বিটু, ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইসহাক মিয়া, দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কামরুল হাসান রিপন, সাধারণ সম্পাদক তারিক সাইদসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর নেতারা।

সারাবাংলা/এনআর/একে





Source link