latest

বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে অনিশ্চিত শ্রীলঙ্কার ইংল্যান্ড সফর


বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে অনিশ্চিত শ্রীলঙ্কার ইংল্যান্ড সফর

আর তিন দিন পরেই শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার ইংল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা, কিন্তু সেই সফরই এখন অনিশ্চয়তায় পড়েছে। কারণ বেতন নিয়ে বোর্ডের সাথে লঙ্কান ক্রিকেটারদের দ্বন্দ্ব মীমাংসা হওয়ার বদলে ক্রমেই আরও জটিল হচ্ছে। বোর্ডের ঘোষিত বেতন কাঠামো প্রত্যাখ্যান করেছেন ক্রিকেটাররা।

বোর্ড-খেলোয়াড় দ্বন্দ্বে অনিশ্চিত শ্রীলঙ্কার ইংল্যান্ড সফর

গত কয়েক মাস ধরেই শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সাথে খেলোয়াড় মনোমালিন্য হচ্ছিল বেতন নিয়ে। গত মাসে লঙ্কান ক্রিকেটাররা যখন বাংলাদেশ সফরে ছিল তখন দেশটির ক্রিকেট বোর্ড বেতন কাঠামো ঘোষণা করেছিল। তাৎক্ষণিকভাবে খেলোয়াড়রাও সেই বেতন কাঠামো প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। চুক্তিতে থাকা ২৪ জন ক্রিকেটারই এই বেতন কাঠামোর বিরুদ্ধে আঙুল তোলেন।

Also Read – শেষ দিনে জয়ে চোখ নিউজিল্যান্ডের

বাংলাদেশে বসেই নতুন অধিনায়ক কুশল পেরেরা আশা ব্যক্ত করেছিলেন সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে দ্রুতই। কিন্তু সমাধান তো হয়নি, বরং আরও জটিল হয়েছে। এবারের চুক্তিতে ২৪ জন ক্রিকেটারকে রেখেছিল বোর্ড, যা কিনা গত ৩২ বছরে লঙ্কান ক্রিকেটারদের সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত চুক্তি তালিকা। তবে শনিবার লঙ্কান ক্রিকেটের শীর্ষ ৩৮ জন খেলোয়াড়ের স্বাক্ষরিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ করে আবারও চুক্তি তালিকাকে প্রত্যাখ্যান করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে তারা স্পষ্ট বলেছেন, ‘রেটিং পয়েন্টে স্পষ্টতা নিয়ে আপত্তি থাকায় ক্রিকেটাররা চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন না।’ উল্লেখ্যে, গত ৩ জুন পর্যন্ত স্বাক্ষর করার সময় বেঁধে দিয়েছিল বোর্ড কিন্তু ক্রিকেটাররা সময়ের মধ্যে স্বাক্ষর করেননি।

আগামী ৯ মে দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটের ফ্লাইটে ইংল্যান্ড সফরে রওনা দেওয়ার কথা। কিন্তু ক্রিকেটাররা বোর্ডের সাথে দ্বন্দ্বে জড়ানোয় এখন সেই সফরও অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। অবশ্য সফরে যাওয়া নিয়ে কোনো কথা বলেননি ক্রিকেটাররা।

প্রসঙ্গত, গত ২০ মে ঘোষিত এই তালিকায় এ১ ক্যাটেগরিতে সর্বোচ্চ বেতন দেওয়া হবে ১ লাখ মার্কিন ডলার এবং সর্বনিম্ন বেতন দেওয়া হবে ডি৩ ক্যাটেগরিতে, ২৫ হাজার মার্কিন ডলার।

একনজরে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটারদের বেতন: 

এ১ (১ লাখ মার্কিন ডলার) : ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও নিরোশান ডিকভেলা

এ২ (৮০ হাজার মার্কিন ডলার) : কুশল পেরেরা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস

এ৩ (৭০ হাজার মার্কিন ডলার) : দিমুথ করুণারত্নে, কুশল মেন্ডিস

বি১ (৬৫ হাজার মার্কিন ডলার) : সুরাঙ্গা লাকমল, দাসুন শানাঙ্কা

বি২ (৬০ হাজার মার্কিন ডলার) : বানিন্দু হাসারাঙ্গা, লাসিথ এম্বুলডেনিয়া

বি৩ (৫৫ হাজার মার্কিন ডলার) : পাথুম নিশাঙ্কা, লাহিরু থিরিমান্নে

সি১ (৫০ হাজার মার্কিন ডলার) : দুশমান্থা চামিরা, কাশুম রাজিথা

সি২ (৪৫ হাজার মার্কিন ডলার) : দীনেশ চান্দিমাল, লাকশান সান্দাকান

সি৩ (৪০ হাজার মার্কিন ডলার) : বিশ্ব ফার্নান্দো, ইসুরু উদানা

ডি১ (৩৫ হাজার মার্কিন ডলার) : রমেশ মেন্ডিস, ওশাদা ফার্নান্দো

ডি২ (৩০ হাজার মার্কিন ডলার) : দানুশকা গুণাথিলাকা, লাহিরু কুমারা

ডি৩ (২৫ হাজার মার্কিন ডলার) : অকিলা ধনঞ্জয়া, আশেন বান্দারা।



Source link