latest

পেস বোলিংয়ে আইপিএলের চেয়েও পিএসএল এগিয়ে!


পেস বোলিংয়ে আইপিএলের চেয়েও পিএসএল এগিয়ে!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ও পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) মধ্যে কোন টুর্নামেন্ট সেরা- এই তর্কে বেশিরভাগ ক্রিকেট সমর্থকই এগিয়ে রাখবেন আইপিএলকে। যদিও পাকিস্তানের সমর্থকদের মধ্যে পিএসএল নিয়ে উন্মাদনা কম নয়। তবে এক দিক বিচারে আইপিএলের চেয়ে পিএসএলেই বেশি মুগ্ধ ফাফ ডু প্লেসিস।

ডু প্লেসিসকে নিয়ে লাইভে আসছেন তামিম
তামিম এবার সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ককে নিয়ে আসবেন লাইভে। ফাইল ছবি

প্রোটিয়া এই সুপারস্টারের মতে, খেলার মানের দিক থেকে উন্নত পাকিস্তানের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ। বিশ্বজুড়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে দাপিয়ে বেড়ানো ডু প্লেসিসের মতে, পিএসএলের মঞ্চে অধিক মনোমুগ্ধকর পেসারদের পারফরম্যান্স।

আইপিএলের কন্ডিশন ও টিম কম্বিনেশনে স্পিনাররা প্রাধান্য পেলেও পিএসএলে উল্টো চিত্র। উপমহাদেশের প্রথা ভেঙে এই টুর্নামেন্টে পেসারদের গতির ঝড় তুলতে দেখা যায়। বিষয়টি দেখে ডু প্লেসিস এতই মুগ্ধ যে, পিএসএলের পেস বোলিংকে তিনি আইপিএলের চেয়েও এগিয়ে রাখছেন।

Also Read – ডিপিএল : বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচের জন্য থাকছে রিজার্ভ ডে

ডু প্লেসিস বলেন, ‘পিএসএলে খেলার মান খুব ভালো। বলতেই হবে, আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে এই টুর্নামেন্টের ফাস্ট বোলিং।’

‘দক্ষিণ আফ্রিকার মতো পেস বোলিং সহায়ক দেশের উইকেটে খেলে আমি বড় হয়েছি। তবে এখানে যে পরিমাণ বোলার ১৪০ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিতে বল করে, তা দেখে আমি প্রথমে বেশ অবাকই হই। আমার মতে ভারতে অনেক ভিন্ন ধরনের স্পিনারের দেখা মেলে, তবে পিএসএলের আসল ব্যাপার হল এখানকার ফাস্ট বোলারদের গতি।’– বলেন তিনি।

ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার চিরায়ত দ্বৈরথের কারণে আইপিএল ও পিএসএলের মধ্যে তুলনা টেনে কথার যুদ্ধে মাতেন দুই দেশের সমর্থকরা। পেসারদের বন্দনা করে পিএসএলের ভক্তদের জন্য যেন একটু সুবিধাই করে দিলেন ডু প্লেসিস!

উল্লেখ্য, পিএসএলের অসমাপ্ত ম্যাচগুলো শুরু হবে আগামী ৯ জুন থেকে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে। বিশ্বকাপের আগে আমিরাত আয়োজন করবে আইপিএলের বাকি অংশও। করোনার হানায় দুই টুর্নামেন্টই স্ব-স্ব দেশে সম্পন্ন করতে ব্যর্থ হয়েছে বোর্ডগুলো।



Source link