রুবেলের শেষ ওভারে ‘২৭’ রান নিয়েও ম্যাচ হারল দোলেশ্বর


রুবেলের শেষ ওভারে ‘২৭’ রান নিয়েও ম্যাচ হারল দোলেশ্বর

ডিপিএলে প্রাইম দোলেশ্বরকে ৩ রানে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে দলটি। 

তামিম ঝড়ের পর মিঠুনের ছক্কাবৃষ্টি, প্রাইম ব্যাংকের বড় পুঁজি
বোলারদের প্রতিহতের জন্য শক্ত পুঁজি জড়ো করেছে প্রাইম ব্যাংক। ফাইল ছবি

প্রাইম ব্যাংকের বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় প্রাইম দোলেশ্বর। ওপেনার ইমরান-উজ-জামানের স্ট্যাম্প উড়িয়ে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। সাইফ হাসানও এই ম্যাচে বড় স্কোর করতে পারেননি। ১১ বলে ১৩ রানের ইনিংস খেলে আউট হন সাইফ। তাঁকে সাজঘরে ফেরান রুবেল হোসেন।

মার্শাল আইয়ুব ও ফজলে মাহমুদ মিলে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। তবে দুই ব্যাটসম্যানই চাপের মুখে ধীরগতির ব্যাটিং করেন। প্রাইম ব্যাংককে তৃতীয় উইকেট এনে দেন স্পিনার নাঈম হাসান। ২৪ বলে ২২ রান করা মার্শালকে ফেরান তিনি। তাঁর বিদায়ের পরই সাজঘরে ফিরেন ফজলেও।

Also Read – জিম্বাবুয়ে সফর : ‘১’ দিনের কোয়ারেন্টিন, ‘৩’ ধাপে যাত্রা

দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে চাপ সামলে উঠতে পারেননি তরুণ শামীম হোসেনও। তাঁর উইকেটটি নিয়েছেন রুবেল। দলের বাকি ব্যাটসম্যানরা যেখানে ইনিংস বড় করতে ব্যর্থ হয়েছিল সেখানে কিছুটা আশা দেখিয়েছিলেন শরিফুল্লাহ। তবে তিনিও ক্রিজে থিতু হয়ে সাজঘরে ফিরেন।

তাঁর বিদায়ের পরের বলটিতেই শরিফুলের ওভারে সাজঘরে ফিরেন ১৩ রান করা ফরহাদ রেজা। দোলেশ্বরের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে বল হাতে বেশ কৃপণ ছিলেন শরিফুল ইসলাম। চার ওভারে ১৫ রান দিয়ে নিয়েছেন দুটি উইকেট। ডটই ছিল ১৪টি! প্রাইম ব্যাংকের বোলারদের দিনে দোলেশ্বরের স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ব্যর্থ হলেও শেষদিকে ব্যাটিংয়ে ঝলক দেখিয়েছেন কামরুল।

রুবেলের করা শেষ ওভারের পাঁচ বলের মধ্যে চারটিই ছয় হাঁকান কামরুল। শেষ বলে পাঁচ রানের প্রয়োজন হলে রুবেলের সেই বলটি থেকে মাত্র একটি রান নিতে সক্ষম হন তিনি। কামরুল খেলেন ১২ বলে ৩৮ রানের ঝড়ো ইনিংস।

দোলেশ্বরকে রানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। অন্যদিকে দুই’য়ে নেমেছে প্রাইম দোলেশ্বর।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

প্রাইম ব্যাংক ১৫১/৭ (ওভার ২০)

মিঠুন ৫৫, এনামুল ২

এনামুল জুনিয়র ১/১৭(৪), তাইবুর ১/২১ (২)

প্রাইম দোলেশ্বর ১৪৮-৯  (ওভার ২০)

কামরুল ৩৮*, শরিফুল্লাহ ২৩



Source link